পাতা:শ্যামলী - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


GY সেটা তারও ছিল ব’লেই আর কারও পারতেন না। সইতে । কাগজখানা তুলে ধরে বললেন,— “বুঝিয়ে দাও তো বাপু, এই কটা লাইন, দেখি তোমার ইংরেজি বিদ্যে ।” । নিষ্ঠুর অক্ষরগুলোর দিকে তাকিয়ে মুখ লাল ক’রে উঠতে হল ঘেমে। ঘরের এককোণে ব’সে একলা করছিল। কড়িখেলা আমার অপমানের সাক্ষী কণি । দ্বিধা হল না পৃথিবী, অবিচলিত রইল চারদিকের নির্মম জগৎ পরদিন সকালে উঠে দেখি, সেই কাগজখানা আমার টেবিলে । শিবরামবাবুর ছবির কাগজ। এত বড়ো দুঃসাহসের গভীর রসের উৎস কোথায়, তার মূল্য কত, সেদিন বুঝতে পারে নি বোকা ছেলে । ভেবেছিলেম, আমার কাছে কণির এ শুধু স্পর্ধার বড়াই।