পাতা:শ্যামলী - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৬৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মিলভাঙা এসেছিলে কঁচা জীবনের পেলাব রূপটি নিয়েএনেছিলে আমার হৃদয়ের প্রথম বিস্ময়, রক্তে প্ৰথম কোটালের বান। আধোচেনার ভালোবাসার মাধুরী ছিল যেন ভোরবেলাকার কালো ঘোমটায় সূক্ষ্ম সোনার কাজগোপন শুভদৃষ্টির আবরণ। (न्दू भ.ि*J ७२न्N3 অসংশয় হয় নি। পাখির কাকলী ; বনের মর্মর একবার জাগে, একবার যায় মিলিয়ে । दछgव्नांकद्ध जश्नigद्धझ भावशाgन চুপিচুপি তৈরি হতে লাগল আমাদের দুজনের নিভৃত জগৎ । পাখি। যেমন প্ৰতিদিন খড়কুটো কুড়িয়ে এনে বাসা বঁধে তেমনি সেই জগতের উপকরণ সামান্য, চলতি মুহুর্তের খসে-পড়া উড়ে-আসা সঞ্চয় দিয়ে গাথা ।