পাতা:শ্রীমদ্‌ভগবদ্‌গীতা-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৪৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


as শ্ৰীমদ্ভগবদগীতা । -ഹബNasirkhanBot (আলাপ) জ্ঞানকেই প্রধানতঃ স্বধৰ্ম্মস্থানীয় করেন, কেহ কৰ্ম্মকে ঐক্কপ প্রধানতঃ স্বধৰ্ম্ম স্বরূপ গ্রহণ করেন। জ্ঞানের চরমোদ্দেশ্য ব্ৰহ্ম ; সমস্ত জগৎ ব্রহ্মে আছে। এ জন্ত জ্ঞানার্জন যাহাদিগের স্বধৰ্ম্ম, তাহাদিগকে ব্রাহ্মণ বলা যায় । ব্রাহ্মণ শব্দ ব্ৰহ্ম শব্দ হইতে নিম্পন্ন হইয়াছে। কৰ্ম্মকে তিন শ্রেণীতে বিভক্ত করা যাইতে পারে । কিন্তু তাহা বুঝিতে গেলে কৰ্ম্মের বিষয়টা ভাল করিয়া বুঝিতে হইবে। জগতে অস্তৰ্ব্বিষয়ু আছে, ও বহিৰ্ব্বিষয় আছে । অন্তৰ্ব্বিষয় কৰ্ম্মের বিষয়ীভূত হইতে পারে না ; বহিৰ্ব্বিষয়ই কৰ্ম্মের বিষয়। সেই বহিৰ্ব্বিষয়ের মধ্যে কতকগুলিই হৌক, অথবা সবই হৌক, মনুষ্যের ভোগ্য । মনুষ্যের কৰ্ম্ম মনুষ্যের ভোগ্য বিষয়কেই আশ্রয় করে। সেই আশ্রয় ত্রিবিধ, যথী (১) উৎপাদন, (২) ংযোজন বা সংগ্ৰহ, (৩) রক্ষা । যাহারা উৎপাদন করে তাহার। কৃষিধৰ্ম্মী ; (২) যাহার সংযোজন বা সংগ্রহ করে তাহার শিল্প বা বাণিজ্যধৰ্ম্মী ; এবং যাহার রক্ষা করে তাছার যুদ্ধধৰ্ম্মী । ইহাদিগের নামান্তর ব্যুৎক্রমে ক্ষত্রিয়, বৈশু, শূদ্র, একথা পাঠক স্বীকার করিতে পারেন কি ? স্বীকার করিবার প্রতি একট। আপত্তি আছে। হিন্দুদিগের ধৰ্ম্মশাস্ত্রানুসারে এবং এই গীতার ব্যবস্থানুসারে কৃষি শূদ্রের ধৰ্ম্ম নছে ; বাণিজ্য এবং কৃষি উভয়ই বৈপ্তের ধৰ্ম্ম । অন্ত তিন বর্ণের পরিচর্য্যাই শূদ্রের ধৰ্ম্ম। এখনকার দিনে দেখিতে পাই কৃষি প্রধানতঃ শূদ্রেরই ধৰ্ম্ম। কিন্তু অন্ত তুিন বর্ণের পরিচর্য্যাণ্ড এখনকার দিনে প্রধানতঃ শূদ্রেরই ধৰ্ম্ম । যখন জ্ঞানধৰ্ম্মী, যুদ্ধধৰ্ম্মী, বাণিজ্যধৰ্ম্মী, বা কৃষিধৰ্ম্মীর কৰ্ম্মের এত বাহুল্য হয়, যে তদ্ধৰ্ম্মিগৎ