পাতা:শ্রীশ্রীহরি লীলামৃত.djvu/১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মহাভাবে দণ্ডভঙ্গ নিতাই মাতিল।
সেভাব লইতে প্রভুর বাকী পড়ে গেল।।
একারণ অবতার হৈল প্রয়োজন।
এ লীলায় করিবেন সে ভাব গ্রহ৷৷।


ভক্ত-কণ্ঠহার

আর এক ৷৷বিচার অন্তরে জাগিল।
দণ্ড ভাঙ্গি কমণ্ডলু কেন না ভাঙ্গিল।।
উভয়ের ভাব তাহা উভয় জানিলা।
শেষ লীলা কমণ্ডলু ভেঙ্গে ৷৷বে মালা।।
লক্ষ্মীকে করিয়া ত্যাগ কমণ্ডলুধারী।
কমণ্ডলু ভেঙ্গে লক৷৷্মী বলাইবে হরি।।
প্রভুর হাতের কড়া মান্য রাখি তার।
কমণ্ডলু হ’বে তার ভক৷৷কণ্ঠহার।।
সে কারণ অবতার হৈল প্রয়োজন।
শুদ্ধ প্রেম বিতরণ জীবের ক৷৷ণ।।
সুবিশুদ্ধ প্রেম দান গৌরাঙ্গ লীলায়।
সে প্রেম শোষিল প্৷৷য় কলির মায়ায়।।
আদেশে গোলকচন্দ্র নরহরি কায়।
রচিল তারকচন্দ্র ভেবে মৃত৷৷ুঞ্জয়।।


যম কলি প্রভাব গ্৷৷্থালোচনা

পুন প্রেম প্রচারিতে হইল মনন।
সে কারণ হ’ল যশোমন্তের নন্দন।।
যদি বল গৌরাঙ্গের প্রেম তুচ্ছ নয়।
সে প্রেম শোষিবে কেন৷৷লির মায়ায়।
তার সাক্ষী ভাগবতে আছয় প্রমাণ।
রাজা পরীক্ষিত স্নান করিবারে যান।।
বৃষরূপে ছিল ধর্ম্ম দাড়িয়া তখন।
মুদগর লইয়া কলি ভেঙ্৷৷ছে চরণ।।
হেনকালে বসুমতী সুরভীরূপেতে।
কেঁদে কেঁদে কহে ডেকে রাজা৷৷রীক্ষিতে।।
অই কলি অই ধর্ম্ম এই আমি ক্ষিতি।
রক্ষা কর বিপদে ধার্ম্৷৷ক নরপতি।।
কলিকে ধরিয়া রাজা চাহিল কাটিতে।
স্মরণ হইল কলির প্রাণে৷৷ভয়েতে।।
রাজা বলে না রহিবি মম অধিকারে।
চারিস্থান চাহি নিল কলি ৷৷িহারে।।
স্বর্ণকার দোকান অপর বেশ্যালয়।
সুরাপান জীবহত্যা যে যে৷৷নে হয়।।
চারিঠাই পেয়ে কলি পাইল আহ্লাদ।
ভাবে সর্ব্ব ঠাই হ’ল আম৷৷ প্রসাদ।।
বেশ্যালয় যায় কেহ করে সুরা পান।
যদি কোন মহাজন সে পথে৷৷া যান।।
ব্যাসের কলম সাক্ষী বেশ্যা বলি কারে।
পঞ্চ সঙ্গ করে নার৷৷বেশ্যা বলি তারে।।
অনেকেই জীব হত্যা করেছে সদায়।
মৎস্যমৃগ পক্ষী সেকি জীব৷৷ধ্যে নয়।।
ধনবান হ’লে যাবে স্বর্ণকার ঠাই।
দোকন স্পর্শিলে কলি তাহ৷৷কি এড়াই।।
ইহাতেও যদি কেহ না ভুলে মায়ায়।
রসিকের ধর্ম্ম দিয়া অ৷৷কে মজায়।।
তার সাক্ষী শ্রীগৌরাঙ্গ ধর্ম্ম যবে দিল।
চিত্রগুপ্ত ত্র৷৷তচিত্ত খাতা ফেলাইল।।
মৌন হ’য়ে বসিলেন যম মহাশয়।
কাম ক্রোধ ষড়ঋপু হইল উদয়৷৷
যার যার প্রাদুর্ভাব জানাইল তাই।
সবে কহে যম অধিকার যায৷৷নাই।।
সে সব লিখিতে গেলে পুথি বেড়ে যায়।
সংক্ষেপে লিখিব কিছ৷৷শাস্ত্রে যাহা কয়।।
কাম বলে মহারাজ চিন্তা কি তোমার।
আমি ভরি দিব তব দক্ষিণ৷৷ দ্বার।।

শ্লোক
কা চিন্তা ভো মৃত্যুপতে অহং প্রকৃতি ভবান্‌।
শোষ৷৷ং শোষিতং প্রেম চৈতন্যং কিং করিষ্যতি।

পয়ার
শোষিব শোষিব প্রেম প্রকৃতি হইয়া।
কি করিতে পারে একা চৈতন্য আসিয়া।।
বলে কলি শুন বলি ধর্ম্ম নরমণি।
আমি দিব গৌরাঙ্গের সব ভক৷৷ আনি।।
ধরিব বৈরাগ্য বেশ মুখে রেখে দাড়ি।
ভেকধারী সাধু হ’য়ে ৷৷রিব বাড়ী বাড়ী।।
চৈতন্যের তত্ত্ব যাতে সুযুক্তি বিধানে।।
যম কলি প্রভাব ৷৷গ্রন্থ বিরচিত।
জীব গৌঁসাই সেই গ্রন্থ ৷৷স্বামী লিখিত।।