পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভূমিকা SQ ইংরেজদের এদেশে বসতি করিবার বিরুদ্ধে যে আইন অাছে তাহা এদেশের কৃষিকৰ্ম্ম, শিল্প ইত্যাদির উন্নতির পক্ষে মহাবাধা, এই বাধা দূর করিয়া দেওয়া হউক। পত্ৰলেখক এই প্রস্তাবের সম্পূর্ণ বিরোধী। তিনি লিখিলেন যে, যন্ত্রনিৰ্ম্মিত স্থতার আমদানি হওয়াতে এদেশের বহু দীনদরিদ্র স্ত্রীলোকের অন্নাভাব হইয়াছে, বিলাতী শিল্পকৰ্ম্মকারীরা বিলাতে থাকিয়াই এদেশের লোকের অল্প কাড়িয়া লইতেছে, “তাহার। এদেশে আইলে কি রক্ষা আছে’ । ইহার পর সে-যুগের শাসনব্যবস্থা-সম্পর্কিত বহু সংবাদ বিন্যস্ত হইয়াছে। এদেশে শাস্তিস্থাপন ইংরেজ-শাসনের একটি বড় কীৰ্ত্তি বলিয়া গণ্য হইয়া থাকে। উনবিংশ শতাব্দীর প্রথম দিকে কি ভাবে শাস্তিস্থাপনের ব্যবস্থা ধীরে ধীরে গড়িয়া উঠিতেছিল তাহার কিছু আভাস শাসন-সংক্রান্ত বিবরণগুলি হইতে পাওয়া য়াইবে । সৰ্ব্বশেষে দেশের স্বাস্থ্য ও সম্রাস্ত লোক সম্বন্ধে বহু তথ্য দিয়া সমাজ-বিভাগ সম্পূর্ণ করা হইয়াছে । স্বাস্থ্য-সম্বন্ধীয় সংবাদ হইতে সে-যুগে ওলাউঠা ও অন্যান্য মড়কের কিরূপ প্রাদুর্ভাব ছিল বুঝা যাইবে । এবং সম্রাস্ত লোক সম্বন্ধীয় বিবরণ ( পৃ. ২১৬-৫২ ) হইতে সে-যুগের প্রায় সকল বিখ্যাত বাঙালী সম্বন্ধেই কোন-না-কোন সংবাদ পাওয়া যাইবে। যে-সকল লোকের উল্লেখ এই অংশে পাওয়া যায় তাহাদের মধ্যে গোপীমোহন ঠাকুর, লালাবাবু, দেওয়ান বৈদ্যনাথ মুখোপাধ্যায়, পাথুরিয়াঘাটার রামলোচন ঘোষ, রাজা বৈদ্যনাথ রায়, রামদুলাল দেব, দুর্গাচরণ পিতুড়ি প্রভৃতির নাম বিশেষ উল্লেখযোগ্য । ধৰ্ম্ম-বিষয়ক বিভাগে যে-সকল সংবাদ উদ্ধৃত হইয়াছে, তাহা প্রধানতঃ ধৰ্ম্মের বাহিক অনুষ্ঠান সম্বন্ধীয় ; যেমন, পূজাপাৰ্ব্বণ, বিবাহ, সহমরণ, শ্রাদ্ধ, তীর্থস্থান, ইত্যাদি। প্রথমেই মাহেশের রথের বিবরণ দ্বারা এই বিভাগ আরম্ভ হইয়াছে। মাহেশে রথযাত্রার সময়ে এখনও ধুমধাম হয়, কিন্তু সে ধুমধাম সেকালের তুলনায় কিছুই নয়। ধুমধামের সঙ্গে সঙ্গে মাহেশের স্নানযাত্রায় অনেক মানিকর ঘটনাও ঘটিত । মাহেশে স্নানযাত্রাতে জুয়াখেলায় হারিয়া এক জন লোকের স্ত্রী-বিক্রয়ের একটি সংবাদ ২৫৬ পৃষ্ঠায় দেওয়া হইয়াছে । পুস্তকের এই অংশে আমাদের পূজাপাৰ্ব্বণ সম্বন্ধে অনেক নূতন তথ্য পাওয়া যাইবে । এ-সকল সংবাদের মধ্যে ২৬১ পৃষ্ঠায় ব্রহ্মাণীর পূজা, ২৬২ পৃষ্ঠায় গুপ্তপূজা ও নরবলির বিবরণ, এবং ২৬৬ পৃষ্ঠায় অনিণীত বলি ও জিহবাবলির বৃত্তাস্ত উল্লেখযোগ্য । ২৬৩ পৃষ্ঠায় মহারাজা গোপীমোহন কর্তৃক কালীঘাটে পূজাদান ও কালীঠাকুরাণীকে চারিটি সোনার হাত ও স্বর্ণমুগু দানের সংবাদ অাছে। মুসলমানদের ধৰ্ম্মোৎসবেব কয়েকটি সংবাদও এই স্থানে সন্নিবিষ্ট হইয়াছে ( જૂ. ૨૧૧-ન્ટ ) । এই বিভাগে এদেশের কয়েক জন সম্রাস্ত লোকের বিবাহ ও শ্রাদ্ধের বিবরণ আছে । বিবাহের মধ্যে কাসিমবাজারের কুমার হরিনাথ রায়ের বিবাহ এবং শ্রাদ্ধের মধ্যে দেওয়ান রামদুলাল সরকারের শ্রীদ্ধের বিবরণ বিশেষ উল্লেখযোগ্য । হরিনাথ রায় কাসিমবাজারের জমিদার-বংশের * প্রতিষ্ঠাতা স্থপ্রসিদ্ধ কাস্তবাবুর পৌত্র এবং রামদুলাল সরকার বিখ্যাত ད་ལྗོ───-s