পাতা:সংবাদপত্রে সেকালের কথা প্রথম খণ্ড.djvu/৪৮৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সম্পাদকীয় 鑫8° ‘বাঙ্গাল গেজেটি, ১৮১৮ সনের মে (?) মাসে কলিকাতা হইতে ইহা প্রকাশিত হয় । এ-সম্বন্ধে বিস্তৃত আলোচন আমার ‘দেশীয় সাময়িক পত্রের ইতিহাস ১ম খণ্ড, ১০-১৩ পৃষ্ঠায় দ্রষ্টব্য । পৃ. ৬৮—জয়গোপাল তর্কালঙ্কার । জয়গোপাল তর্কালঙ্কার সে-যুগের এক জন খ্যাতনামা পণ্ডিত ছিলেন । র্তাহার পিতার নাম কেবলরাম তর্কপঞ্চানন । জয়গোপাল কিছু দিন স্ত্রীরামপুর মিশনারীদের দক্ষিহস্তস্বরূপ ছিলেন । সমাচার দর্পণ পত্রের প্রথমাবস্থায় সম্পাদন-কার্ষ্যে তিনি যথেষ্ট সহায়তা করিয়াছিলেন । তাহার পর ১৮২৩ সনে তিনি গবৰ্ম্মেন্ট সংস্কৃত কলেজে কাব্যের অধ্যাপক নিযুক্ত হন। জয়গোপাল অনেকগুলি পুস্তকের রচয়িত । আমরা তঁহার যে-কয়খানি পুস্তকের সন্ধান পাইয়াছি, নিম্নে সেগুলির তালিকা ( ১ ) শ্ৰীবিল্বমঙ্গলকৃত কৃষ্ণবিষয়কশ্লোকা । ১২২৪ সাল (- ১৮১৭ ) পৃ. সংখ্যা ৫২ ৷ ইহাতে ১৮৯টি শ্লোক ও পয়ারে তাহার বঙ্গানুবাদ আছে। পুস্তকের শেষ পৃষ্ঠ হইতে জান৷ যায়, এই পুস্তক “কলিকাতাতে ছাপা হইল ॥ ১২২৪” । ইহার পৃষ্ঠা-সংখ্যা ৫২ ৷ পুস্তকের প্রথম ও শেষ পৃষ্ঠায় জয়গোপালের পরিচয় পাওয়া যায়। পুস্তকের গোড়াতেই আছে :“চারি সমাজের পতি কৃষ্ণচন্দ্র মহামতি ভূমিপতি ভূমিস্বরপতি। তার রাজ্যে শ্রেষ্ঠধাম । সমাজপূজিতগ্রাম বজরাপুরেতে নিবসতি। শ্ৰীজয়গোপাল নাম হরিভক্তিলাভকাম উপনাম প্রীতকর্ণলঙ্কার । ভক্তবৃন্দমধ্যরবি শ্ৰীবিল্বমঙ্গল কবি কবিতার প্রকাশে পয়ার ।” শেষ পৃষ্ঠায় ( পৃ. ৫২) আছে,— “অবসতি মধুচটশ্রেষ্ঠবংশাবতংসো হৃদয়ত মহেশো ধাৰ্ম্মিক শ্ৰীমহেশ । তদনুমতিমুপেত্য এলগোপালশৰ্ম্ম ব্যতনুত হরিভক্তিগ্রন্থভাষাং স্ফটার্থাং ।” ( ২ ) শিক্ষাসার । ১৮১৮ । পৃ. সংখ্যা ৭২ ৷ ইণ্ডিয়া অপিস লাইব্রেরির বাংলা পুস্তকের তালিকায় (vol. ii, PL v. 20 ) এই পুস্তকখানির নিম্নলিখিত বর্ণনা পাওয়া যায় ঃ– Sikshasara. Rules, in verse, on Ethics, Astrology, Arithmetic, eie. By Jayagopala Tarkalankara. pp. 72. Serampur, 1818. ( ৩ ) পত্রের ধারা । ১৮২১ । পৃ. সংখ্যা ৫৬ ৷ রাধাকান্ত দেবের লাইব্রেরিতে এই পুস্তকের এক খণ্ড আছে। ইহার আখ্যাপত্রটি উদ্ধত করিতেছি ঃ– - পত্রের ধারা। অর্থাৎ পাঠ্যপাঠ ও পট ও কবুলিয়ত ও দরখাস্ত প্রভৃতি । ৰাহ। বালকেরদের শিক্ষার্থে সংগৃহীত হইল। ! — | স্ত্রীরামপুরে ছাপ হইল সন ১৮২১ শাল । রচনার নিদর্শনস্বরূপ এই পুস্তক হইতে একখানি পত্র উদ্ধত করিলাম — ঐক্রঈশ্বরঃ । বয়ঃকনিষ্ঠ খুড়াপ্রভৃতিকে এই পাঠ লিখিবেক । পূজনীয় শ্ৰীযুত রামচরণ বন্দ্যোপাধ্যায় খুড়া মহাশয় চরণেষু | আশীৰ্ব্বাদাকাভিক্ষ শ্ৰীকৃষ্ণগোবিন্দ শৰ্ম্মণ: প্ৰণামপূর্বক নিবেদনমিদং মহাশয়ের আশীৰ্ব্বাদে এ জনের সমস্ত মঙ্গল । পরং স্ত্রীরামপুরে জীযুত সাহেব লোকের অন্তই লোকেরদিগের বিদ্যাভ্যাসের নানা প্রকার চেষ্টা করিতেছেন যদ্যপি অধ্যয়ন করিতে বাসনা থাকে তবে গ্রীরামপুরের পাঠশালাতে আসিবেন এখানে বাসাথরচও পাইবেন অতএব