পাতা:স্বর্ণ-শৃঙ্খল নাটক.pdf/৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয় সংস্করণের বিজ্ঞাপন। স্বর্ণ শৃঙ্খল নাটক যখন রচনা হয় তখন হইতে আজ পর্য্যন্ত অৰ্দ্ধ শতাব্দীর উপর আরও পাঁচ বৎসর অতীত হইয়া গিয়াছে, আর ঢাকা হইতে ইহার যে প্রথম সংস্করণ প্রকাশিত হয় তাহাও আজ সাতচল্লিশ বৎসরের কথা । সেই অবধি ইহার আর পুনমুদ্রণ হয় নাই । যিনি ইহার রচয়িত তিনি তখন ইহার অঙ্গে নাম মুদ্রিত করিয়! আপনাকে গ্রন্থকর্তৃরূপে প্রকাশ করিতে সন্মত হন নাই। রচয়িতার এক অন্তরঙ্গ বন্ধু বন্ধুকীৰ্ত্তি রক্ষার জন্য নিজ ব্যয়ে ইহা ছাপাইয়াছিলেন । যিনি এই পুরাতন নাটক থানির রচয়িত তিনি আর এখন কোথাও অজ্ঞাত নাই । বঙ্গীয় সাহিত্যক্ষেত্রেও তিনি আপনাকে এমন অক্ষয় ভাবে প্রতিষ্ঠিত করিয়া গিয়াছেন যে, কোন দিনই সেখানে কেহ তাহাকে ভুলিতে পারিবে না। ভৈষজ্যরত্নাবলী নামে ইংরাজী ভৈষজ্য নিদানের উৎকৃষ্ট বাঙ্গালা সঙ্কলন প্রকাশ করিয়৷ পিতৃদেব যেমন বর্ষে বর্ষে চিকিৎসা শিক্ষার্থীর শ্রদ্ধা ভক্তি অর্জন করিতেছেন, তেমনি সাহিত্য-সংসারেও ঐ গ্রন্থের রচনাতেই প্রভূত যশ ত জৰ্জন করিয়া গিয়াছেন । এখন সাহিত্যের অন্য বিভাগে যেখানে তিনি নিজে জীবদ্দশায় নাম প্রকাশ করিতে সম্মত হন নাই সেখানে যদি আজ তাহার নাম প্রকাশিত হয়, তাহা হইলে বোধ হয়, তাহার স্বর্গগত আত্মার আর এখন বিরক্তি উৎপাদন করিবে না । পিতৃদেব ১২৬২ সালে স্বর্ণ-শৃঙ্খল নাটক রচনা করেন, তখন তিনি বরিশালের সরকারী ডাক্তার ছিলেন। যে বৃন্দাবনচক্র বন্দ্যোপাধ্যায়