পাতা:স্রোতের গতি - ইন্দিরা দেবী (১৯২১).pdf/১২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

স্রোতের গতি

১১৭

সভার এবারকার অধিবেশনে “পুরুষদের সহিত সম অধিকার” সম্বন্ধে মন্তব্য প্রকাশে এবার একটু আধ্টু মনে হইল —পরিবর্ত্তন করা প্রয়োজন হইবে—অমিয়া মনে মনে ইহার একটা খস্ড়াও করিয়া রাখিল।

 সে রাত্রিটি রণেন্দ্রেরে কি ভাবে কাটিয়াছিল, আমরা তাহার সঠিক বিবরণ অবগত নহি—মানুষটি ভারি চাপা কি না। তবে অমিয়ার পরিত্যক্ত পুষ্পগুচ্ছটি যে অনেক রাত্রি পর্য্যন্ত তাহার বিছানায় থাকিয়া পুনরায় ফুলদানিতে আশ্রয় লাভ করিয়াছিল, তাহার বিশ্বস্ত প্রমাণ আমরা পাইয়াছি; তা ছাড়া আরও একটি ঘটনা ঘটিয়াছিল। অমিয়ার বিদায়ের দিন নিকটবর্ত্তী হইলে, মীনার নিভৃত প্রশ্নে আকর্ণলজ্জায় রাঙ্গা হইয়া সে এমন কোন কথা স্বীকার করিয়াছিল, যাহা শুনিয়া মীনা বলিয়াছিল, পৃথিবীতে এত বড় আশ্চর্য্য ঘটনা যে ঘটিতে পারে, ইতঃপূর্ব্বে তাহার সে ধারণাও ছিল না! সে কথা যথাসময়ে প্রকাশ পাইবে।