পাতা:হলুদ পোড়া - মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

30 হলুদ পোড়া । অলস, এমনি সংক্ষিপ্ত, এমনি ভীরু । কেহ রাগ করে না, ধৈৰ্য হারায় না, কড়া কথা বলে না। এই যে সামান্য একটু আলোচনা হুইয়া গোল ইহা শুনিয়া বাহিরের লোকের পক্ষে কল্পনা করাও কঠিন যে, সুশীলকে বরখাস্ত করিতে না পারিলে অনন্ত বহুদিন ধরিয়া মনে মনে ক্ষুঃ হুইয়া থাকিবে, পারিলে তাহার জের কমলা সহজে মিটিতে দিবে না। কিন্তু ইহাদের অভিজ্ঞতা এমনি প্রচুর ষে ভবিষ্যতের এই অতিরিক্ত দুৰ্গতির সম্ভাবনায় সন্দেহ করিবার সুযোগও পায় না। সুশীল থাক বা যাক, আজ হইতে দু’জনের সম্পর্ক আরও বৈচিত্রহীন আরও নীরস হুইয়া উঠিবে, কমলা চট পরিয়া থাকিলে অনন্ত তাহা দেখিতে পাইবে না, অনন্তের কোন কথার মৃদুতম প্ৰতিবাদ করিতেও কমলা তুলিয়া যাইবে । । কমলার চোখ জল জল কুরিতে লাগিল। একি জীবন। আনন্দের ‘चलांब उधू नका, निब्रांनन्त्र প্ৰাচুৰ্য্য! অথচ কারণ খুজিয়া পাওয়া ষায় না। ভুল অনন্ত অনেক করিয়াছে এবং তাহার মধ্যে অনেকগুলি ভুল নিন্দনীয়, কিন্তু পরমাত্মীয়ের विकृडि क्या कब्रिड cड भूब cवी' फैलाबजीब्र अंदर्शाजन i •ना । cकन cन डl °iाब S KSYS D g LDDL BeTSDBS S iiiDSS BB করা । , চুরুটটা চুড়িয়া ফেলিয়া অনন্ত বলিল, সময় সময় তোমার মুখের দিকে চেয়ে আমি লজ্জা পাই কমল । , লে তেNআমারি লজ্জ। ] DB DDD S DDD DBDB BDBBuB DDB BBDB DBD DBDD iS কমলা বলিল, মনে নেই। মনে না থাকা আশ্চৰ্য্য। কিন্তু অসঙ্গী নয়। - অনন্ত আর কিছু বলিল ·本科+,