ভানুসিংহ ঠাকুরের পদাবলী/৩

উইকিসংকলন থেকে
Jump to navigation Jump to search


( ৩ )


ললিত।

হৃদয়ক সাধ মিশাওল হৃদয়ে,
 কণ্ঠে শুকাওল মালা।
সখিলো নয়ন জলে বহি গল রয়ণী
 তব নহি আওল কালা।
কত সাধে সখি আসনু কুঞ্জে,
 পহিরনু নীল নিচোল,
রচয়নু কুসুম শয়ান মনোমত,
 মন্দির করনু উজোল।
চল সখি গৃহে চল, মুছহ নয়ন জল,
 চল সখি চল গৃহ কাজে,
মালতি মালা রাখহু বালা,
 ছিছি সখি মৰু মৰু লাজে।

বুঝনু বুঝনু সখি বিফল বিফল সব
 বিফল এ পরিতি লেহা[১]
বিফলরে এ মঝু[২] জীবন যৌবন,
 বিফলরে এ মঝু দেহা!
সখিলো কোন নিদাৰুণ ব্যাধি
 জনমিল মরমে মোর,
সখিলো দাৰুণ প্রণয় হলাহল
 জীবন করইল ভোর।
তৃষিত প্রাণ মম দিবস যামিনী
 শ্যামক দরশন আশে,
আকুল জীবন থেহ[৩] ন মানে,
 অহরহ জ্বলত হুতাশে।
 সত্য কহিলো সখি তোয়,
খোয়ব কব হম শ্যামক প্রেম
 সদা ডর লাগয়ে মোয়।

হিয়ে হিয়ে অব রাখত মাধব,
 সো দিন আসব সখিরে,
বাত ন বোলবে, বদন ন হেরবে,
 মরিব হলাহল ভখিরে!
ঐস বৃথা ভয় না কর বালা,
 ভানু নিবেদয় চরণে,
সুজনক পীরিতি নৌতুন নিতি নিতি,
 নহি টুটে জীবন মরণে।

  1. লেহা—অনুরাগ।
  2. মঝু—আমার।
  3. থেহ—স্থৈৰ্য্য।