সভ্যতার পাণ্ডা/পঞ্চম দৃশ্য

উইকিসংকলন থেকে
Jump to navigation Jump to search


পঞ্চম দৃশ্য।

বিবাহের সভা।

(সর্ব্বেশ্বর, শশীভূষণ ও দিনুর প্রবেশ।)

সর্ব্বে। মশায়, নশিরাম বাবুর মাতুল?

শশী। আজ্ঞে হ্যাঁ, আর ইনি আমার বন্ধু।

দিনু। ইনি ব’ল্‌লেন চল কন্যে দেখে আসি, এলেম সঙ্গে। পাত্রীটী আপনার কে মশাই?

সর্ব্বে। আজ্ঞে, আমার পরিবার।

শশী। ওহে, কি বলে কি?

দিনু। আরে, কথার ভাব বোঝনা, ভদ্রলোকের সঙ্গে কথা কইতে দাও। উনি বলছেন, আমার পরিবারস্থ! তবে বুঝি পাত্রীটির পিতা নাই?

সর্ব্বে। আজ্ঞে না, তিনি আজ ত্রিশ বৎসর পরলোক গমন করেছেন।

শশী। ওহে, কি বলে কি এ?

দিনু। তুমি বৈবাহিক, তোমার সঙ্গে পরিহাস ক’চ্ছেন। আমরা ওসব বুঝি। মশাই, এ সব আয়োজন কি দেখতে পাচ্ছি?

সর্ব্বে। আজ্ঞে, নান্দিমুখের আয়োজন।

দিনু। দেখ শশীভূষণ, আমি বুঝতে পেরেছি, ইনিই তোমার বৈবাহিক। লোকটা দেখ্‌ছি সুরসিক, তোমার সঙ্গে পরিহাস ক’চ্ছে।

সর্ব্বে। আপনি কি বল্‌ছেন মশাই? পরিহাস করছি কি? নশিরাম বাবু আপনাদের কিছু বলেন্‌ নি?

দিনু। নশিরাম আমাদের কন্যা দেখ্‌তে পাঠিয়েছে। তা যাক্, ও সব কথা যাক্, কন্যাটীর পরিচয় কি মশাই?

সর্ব্বে। পরিচয় অতি আশ্চর্য্য! ইনি বিন্দাবন বিশ্বাসের কন্যা, তিরিশ বছরে বিধবা হন, আজ দশ বৎসর আমার প্রণয়িনী, আজ শুভদিনে নশিরাম বাবুর হস্তে অর্পণ করবো।

শশী। ওহে দিনু! বলে কি?

দিনু। মস্করা ক’চ্ছে! মস্করা ক’চ্ছে! বোধ হয় পাত্রীটি এঁর শালী টালি হবে! তা বেশ মশাই পাত্রীটি আনুন।

সর্ব্বে। তিনি আসছেন।

(বিশ্বেশ্বরী ও কুমুদিনীর প্রবেশ)

উভয়ের গীত।

দোজ্ পক্ষের ভাতার ইটি চমৎকার।
আমার হাফ্ সেয়ার, আর হাফ্ সেয়ার পেয়েছে
এই মাইডিয়ার সিস্‌টার॥

এম্নি ভাতার পেলে পরে পর,
বছোর বছোর সাজবো কণে, পাব নতুন বর,
গুণের নিধি ভাতার খুব জবোর,
এমন মুরুব্বি ভাতার আর কি আছে কার।
ভাতারের শুধ্‌বো কিসে ধার॥

দিনু। দেখ্‌ছো দেখ্‌ছো, বলেছিলেম এঁরা সব সুরসিক লোক। এ দুটী কি নর্ত্তকী?

সর্ব্বে। কি! এঁরা আমার পরিবার।

দিনু। তা বটে।

শশী। ও দিনু! আজ বিভ্রাট দেখ্‌ছি।

দিনু। আঃ ছিঃ! তুমি মস্করা বোঝ না?

সর্ব্বে। বড় ডিয়ার!

বিশ্বে। হাফ্‌ডিয়ার!

সর্ব্বে। ইনি তোমার মামাশ্বশুর, এঁর সঙ্গে সেক্‌হ্যাণ্ড কর

বিশ্বে। গুড্‌মর্ণিং! আর হাফডিয়ার ইনি কে?

সর্ব্বে। উনি ওঁর বন্ধু।

কুমু। সিস্‌টার ডিয়ার!

বিশ্বে। সিস্‌টার ডিয়ার!

(উভয়ের আলিঙ্গন)

শশী। ওহে দিনু চলো, বড় বিভ্রাট!

দিনু। দাঁড়াও অভিনয়টা দেখি। এদুটী কি থিয়েটার থেকে আনা হয়েছে?

সর্ব্বে। কি! আমার পরিবারের সাম্‌নে অশ্লীল কথা আপনি উচ্চারণ করেন?

শশী। কেন মশাই থিয়েটার কি অশ্লীল কথা হলো?

সর্ব্বে। খুব অশ্লীল! আপনি যদি নসিরাম বাবুর মাতুল না হতেন তো টেরটা পেতেন।

দিনু। শশী বুঝলে, এও একটী অ্যাক্টার।

সর্ব্বে। মশাই বড় শক্ত শক্ত বলছেন আমায়।

দিনু। না বাপু না, নাচ গাওনা কি কর্‌বে কর। ওগো বাছারা তোমরা অভিনয় সুরু কর।

সর্ব্বে। বড় ডিয়ার! আমি এ উজ্‌বুকের কথায় খুব রাগ্‌ছি।

বিশ্বে। রেগো না প্রাণনাথ, রেগো না।

সর্ব্বে। আচ্ছা রাগ্‌বোনা, আমি গম্ খেয়ে বসি।

দিনু। হাঁ বাছা তোমাদের পালাটা কি?

বিশ্বে। বিবাহ পালা।

শশী। ওহে পালাই চলো। বুঝ্‌ছোনা এই বেটীই কণে।

বিশ্বে। পালাবেন কেন? যদি অনুগ্রহ করে এসেছেন, বে দিয়েই ঘরে নিয়ে চলুন।

(নেপথ্যে ঐক্যতান বাদন।)

সর্ব্বে। বড় ডিয়ার! বুঝি তোমার বর আস্‌ছেন।

কুমু। উলু-উলু-উলু—উলু—

দিনু। হ্যাঁগা এঁর এ বেশ কেন?

সর্ব্বে। উনি ঘোড়ায় চড়্‌তে যাবেন।

দিনু। ইনি কি সার্কাস করেন?

সর্ব্বে। ছোট ডিয়ার। খুব রাগ্‌ছি।

কুমু। তুমি ভারি ষ্টুপিড্ তাই রাগ্‌ছো। আমিতো সার্কাস কর্‌বোই, তবে সিস্‌টার ডিয়ারের বে, এই জন্যেই এতক্ষণ বাড়িতে আছি।

(নসের প্রবেশ।)

শশী। ও দিনু! এ যে আবাগের ব্যাটা নসে হে!

দিনু। বাঃ বাঃ! বড় ঠিক সেজেছে!

শশী। আরে সেজেছে কি? সেই আবাগের বেটা দেখ্‌চ না?

নসে। হাজরা মশায়! কনে তো দেখিয়েছেন, শিগ্‌গির সম্প্রদান করুন।

দিনু। ওহে শশী! আমি কিছু বুঝতে পার্‌চি নে।

শশী। আর বুঝ্‌বে কি, আমার গুষ্টীর পিণ্ডি! ও বেটা এ বুড়ীকে বিয়ে ক’রবে তবে ছাড়বে! ও আবাগের বেটা! তুই এই মাগীকে বিয়ে কর্‌বি নাকি?

নসে। মামা তার অার সন্দেহ রাখ?

দিনু। ও বাবু ও হাজরা মশায়! এখন আমি সব বুঝেছি। তুমি বড় মাগটীর বে দেবে? অার ছোটটির?

কুমু। আমি বরের নীলেম থেকে একটা দেখে শুনে নিয়ে আস্‌বো।

দিনু। ও বাছা এদিকে এসতো, এদিকে এসতো! বরের নীলেমটা কি শুনি?

নসে। দেখতে যাবেন, আপনাকে টিকিট্ দেবো।

শশী। ঐ নসে বেটা নীলেম করেছে। আমি বলি কিসের নীলেম!

দিনু। তবে চল আর কি, চুড়োন্ত হ’লো!

নসে। মামা যেওনা যেওনা, আর বেশী দেরি নাই, উনি ৫ মিনিটের ভেতর নান্দীমুখ সেরেই কন্যা সম্প্রদান করবেন। এই যে পুরুৎ মশাই এয়েচেন।

(পুরোহিতের প্রবেশ।)

দিনু। মশায় বুঝি এই বিবাহের পুরোহিত?

পুরো। কেন, আপত্য কি?

দিনু। এ রকম বিবাহ আর কটি দিয়েছেন?

পুরো। আপনি আমার সঙ্গে ব্যঙ্গ কর্‌ছেন? অামায় চেনেন না, আমি স্মৃতিরত্ন, নূতন স্মৃতি ক’রেছি তাতে সম্পূর্ণ ব্যবস্থা আছে যে, কন্যা সম্প্রদান করতে পারে এক বাপ্‌ আর স্বামী।

নসে। মামা, মামা, ইনি বড উচুদরের পণ্ডিত, ইনি বঢ উচু দরের পণ্ডিত, এঁর সঙ্গে তামাসা না।

দিনু। তবে পুরোহিত মশায়! স্বামী কন্যাকর্ত্তা হ’লে বরের সঙ্গে কি সুবাদ হবে?

পুরে। অতি আশ্চর্য্য সম্বন্ধ! এরূপ সম্বন্ধ কেউ কখন শোনেনি, ভায়রাভাই শশুর!

দিনু। পুরুৎ মশাই! আপনি বেঁচে থাকবেন তো?

শশী। এরা কেউ মর্‌বে না! কেউ মর্‌বে না! তা তুমি দেখো!

পুরো। তুমিতো দেখ্‌চি খুব মেধাবী! তুমি একটা কাজ কর, আমার ব্রাহ্মণীকে বিবাহ কর। তুমিও অমরত্ব পাবে, দেশে দেশে যশ করবে। এ সব নতুন কারখানা, কোন দেশে নাই।

দিনু।এইটি ভট্‌চাজ্যি মশাই ঠিক্‌ বলেছেন! হিন্দু মুসলমানে, খ্রীষ্টানে এ আইন নাই!

পুরো। এই হিন্দুর ভেতর চলন ক’ল্লেম আমি।

শশী। ওহে চল চল।

দিনু। আরে দা্ঁডাও, তোমরা মামা ভাগ্‌নেতে ক’নে জোটালে, আমার অদৃষ্টে কি হয় দেখি।

কুমু। তোমার আদেষ্টও ক’নে জুটতে পারে।

দিনু। তা কই জুটুক না।

কুমু। যদি স্বীকার পাও তিন দিনের ভেতর মর্‌বে, আমি তোমার ক’নে হ’তে স্বীকার।

পুরো। মশাই মশাই, স্বীকার পান, স্বীকার পান, মলেনই বা? খুব নাম রেখে যা’বেন।

নসে। আর ম’রতে কোন কেলেশ হবে না, আমি ইলেক্ট্রীক ব্যাটারি দে আপনাকে মার্‌বো।

সর্ব্বে। উঃ আপনার দেখচি ভারি অদৃষ্ট! আপনার বৈজ্ঞানিক মৃত্যু হবে!

দিনু। তোর সাতগুষ্টীর হোক্‌! ওঠহে ওঠো।

পুরে। কেন, আপনারা যাচ্চেন কেন?

দিনু। যাচ্চি মতিচ্ছন্ন হ’য়েছে, আর কেন।

সর্ব্বে। সেকি সেকি যখন পদার্পণ করেছেন, কিঞ্চিৎ জলযোগ করে যেতে হবে।

দিনু। ভোরপুর আনন্দ হয়ে গিয়েচে! বাবু ভোরপুর আনন্দ হয়ে গিয়েচে! যে সব কথা শুনলেম তিন দিন আর খেতে হবে না চাঁদ!

কুমু। আপনি আমায় ইন্‌সাল্ট করছেন! যদি না বসেন, আপনাকে চাব্‌কে দেব।

শশী। ও দিনু, বোসো, বোসো, বোসো। ছুঁড়ী সত্যি চাব্‌কাবে। আগে পালাতে তো পালাতে, ও মাগী তেড়ে চাবুক মারবে।

পুরো। মশাই রাজি হোন, আমি ব্রাহ্মণীকে ডেকে পাঠাই, এক দিনে তিন্‌টে শুভ বিবাহ সম্পন্ন হোক।

শশী। নে নে নসে কি কর্‌বি কর, আমরা বসে আছি। পুরুৎ ঠাকুর একটা বে সারুন, তারপর কাল আমাদের বে দেবেন।

পুরো। আচ্ছা না করেন ভাল। এতে জোর নেই। একটা নাম রেখে যেতে পারতেন। বোসো হে নসিরাম! বিশ্বেশ্বরী এস, নাও এখন হাতে হাতে সঁপে দাও, আমি একটু ব্যস্ত আছি, কাল এসে নান্দীমুখ ক’রবো। নিদে! এগুলো এখন সরিয়ে রাখ।

(নিদের প্রবেশ ও দ্রব্যাদি লইয়া প্রস্থান।)

বলো এতদিন এ বড় ডিয়ার আমার ছিল, আজ তোমার হ’ল।

(ভবতারিণীর প্রবেশ।)

ভব। বিশ্বেশ্বরী! ভাই, আমার শ্রাদ্ধ হোয়ে গিয়েছে, আমি এসেছি।

বিশ্বে। তবে দাঁড়াও হাফ্ ডিয়ার। এখন হাতে হাতে সোঁপো না! আমার ফ্রেণ্ড ভবতারিণী সাক্ষী হবে।

(নীলাকান্তর প্রবেশ।)

নীল। সর্ব্বেশ্বর বাবু! আমার শ্রাদ্ধ হয়ে গিয়েছে, আমি এসেছি।

ভব। কি তুমি ফ্যান্‌সী বাজারে গেলে না?

নীল। না, বরযাত্রের নেমন্তন্নটা সেরে যাব। তুমি বরের নীলেমে গেলে না?

ভব। আমি কন্যাযাত্র সেরে যাব।

পুরো। আপনারা দুজন বর ক’ণে আনতে যাবেন না কি?

নীল। আজ্ঞে হাঁ।

নসে। কি মশাইদের বিবাহ কর্‌বের ইচ্ছে আছে?

ভব। অাছে।

নসে। মশাই অনুগ্রহ করে আমার একটা কাজ কর্ত্তে হবে। আমার নীলেমে তিনটী লাটের অভাব। এড্‌ভাটাইজ করে ফেলেছি, না বর জোটাতে পারলে বড় অপমান হতে হবে, মামা, আপনি আর এই ভদ্রলোককে আমার এই উপকারটা করতেই হবে।

পুরো। না, আপনি এইখানেই বিবাহ করুন। আপনি আপনার দ্বিতীয় পরিবারটী ছাড়ুন। আপনি ভবতারিণীকে নিন্‌, আপনি কুমুদিনীকে নিন্‌, রাজচটক হবে।

নসে। তবে আমার বরের কি হবে?

পুরো। ঐ তো তোমার মামা অার উনি রইলেন।

(বদ্যিনাথের প্রবেশ।)

বদ্যি। ছিষ্টিধর বাবুকে কুমুদিনী গুঁই মিনেজারিতে টেনে নিয়ে গেল, তানইলে তিনি আসতেন, কি? বরের দরকার, তা আমি আছি ভয় কি নসিরাম বাবু?

শশী। ও দিনু, ধরে যে!

দিনু। ধরে ধরুক্‌, আমিও মরিয়া হয়েছি, তুমিও মরিয়া হও।

শশী। আচ্ছা মরিয়া হলেম।

পুরো। বেশ বেশ, তবে আপনারা বে করুন, অাহা রাজচটক হবে, রাজচটক হবে!

(শশী ও দিনু ব্যতীত) সকলে। বেশ বেশ বেশ! আপনি তবে মন্তর পড়ান্।

পুরো। তোমরা অাপনা আপনি মন্তর পড়ে নাও।

দিনু। সে কি হয়! আপনি মন্তর পড়ান।

পুরো। এ বের এই মন্তর!

দিনু। এই কথাটা ঠিক্‌ বলেছেন!

(সকলের নৃত্য-গীত।)

কারখানা জমকাল—
এখন চলন হলে খুব ভাল॥
এই মলো তো এই মলো, বে হলো তো বে হলো,
খুব সোজা ওর বোঝা এ নিলে,
খুব মজা ফের বোঝা এ দিলে,
ক্যা জুৎ, ক্যা পুরুৎ কণে বর মজ্‌বুৎ,
উমেদার বর আবার বাঙ্গলা হলে উজ্জ্বলো,

মুখআলো॥