পাতা:অক্ষয়-সুধা - অক্ষয়কুমার দত্ত.pdf/৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

২২ অক্ষয়-সুধা অঙ্গীকার করা, প্রথমাবধিই সিদ্ধ হইয়া থাকে। বন্ধুজনের গুহ্যবিষয় ব্যক্ত করাবিহিত নয়, ইহা বন্ধুত্ববিষয়ক এক প্রধান নিয়ম বলিয়। নির্দিষ্ট আছে। অতএব তিনি সদ্ভাব সত্ত্বে বিশ্বাস করিয়া, সংগোপনে যে বিষয়। আমাদিগকে অবগত করিয়াছেন, সম্ভাবের অসদ্ভাব হইলেওতাহা চির কালাই হৃদয়মধ্যে যত্নপূর্বক নিহিত রাখা বিধেয়। প্রায় সকল বিধিরই স্থলবিশেষে সঙ্কোচ করিতে হয়। সৌহৃদের। বিভেদ হইলেও, সুইজ্জনের গুহ্য বিষয় প্রকাশ করা নিতান্ত নিষিদ্ধ, তাহার সন্দেহ নাই। কিন্তু একটি স্থলে উহা নিষিদ্ধ -ইহার ব্যতিক্রম। বলিয়া উল্লেখ করা যায় না। যদি তিনি দ্বেষ-পরবশ হইয়া, মিথ্যাধুবাদ দিয়া, আমাদের নির্দোষ চরিত্রকে দূষিত বলিয়া প্রচার করিতে প্রবৃত্ত হন, আর তাহার পূর্ব-কথিত কোন গোপনীয় বিষয় ব্যক্ত না করিলে, সে দোষে উদ্ধার পাইবার সম্ভাবনা না থাকে, তাহা হইলে, সে বিষয় প্রকাশ করা কদাচ অবৈধ বলিয়া অঙ্গীকার করা যায় না। তিনি যখন অনর্থক অপবাদ দিয়া, আমাদের অকলঙ্কিত চরিত্রকে কলঙ্কিতবৎ প্রতীয়মান করিতে উদ্যত হইলেন, তখন বলিতে হইবে, আমরা বে ৬াহার পূর্ব-কথিত গুপ্ত বিষয় গোপন রাখিব, তিনি আর এরূপ প্রত্যাশ। করেন না। এতাদৃশ মুহৃদ্ভেদ সমধিক যন্ত্রণার বিষয়। কিন্তু অনেকের বন্ধুত্ব ইহা। অপেক্ষাও স্থায়ী ও সুখকর হইয়া থাকে। জীবনান্ত-ব্যতিরেকে তাহাদের সৌহৃদ্য-ভাবের অন্ত হয় না॥ সুহৃদ্ভাগ্যশালী উভয় সমধিক যন্ত্রণাদায়ক মিত্রের মধ্যে একজন যদি দুৰ্বিপাকবশতঃ প্রাণত্যাগ। করেন, তাহা হইলে, অন্য জন তখনও একেবারে নিষ্কৃতি পাইতে পাtরন না, এবং নিস্কৃতি পাইতে বাসনাও করেন না। তিনি মিত্রের শোকে বিমুগ্ধ হইয়া অশ্র-জলে বক্ষঃস্থল প্লাবিত করিলেও, সুহৃদ্ভেদ