পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/১৯৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অমবনাথ ! >brá অমনি স্থসারময় রণয সকল বরযাত্রের আগে হাসতে হাসতে চেলেছেন, আছু দে মাকুন্দে । ছিছি ছি ! এ কি ? এত দিন বিয়ে হলে যে তিন ছেলের বাপ হোতে । স্বসার । আহাহা! কি মুখ ! একটা কাধে, একটা মাথায়, একটা ঘাড়ে। “কলির জীব পাপে পোড়া, মেগের গোলাম ছেলের ঘোড়” । ছি ছি! মহা পাপ ! আপনি ও মত লওয়াবেন না । এ বেশ আছি। নীল। দ্যাখ! আমার ঐ সব ভিটুকিলিমি সহ হয় না । ঠাকুরবিt ঠাকুর বাড়ী গিয়ে মাচ ত্যাগ কোরে এয়েচেন, কিন্তু মাচের ঝোল দেখলে জিবে জল শপ শপ করে। বেশ আছ যদি, তবে একটি স্বন্দরী মেয়ে মানুষ দেখলে’অমন বাঘ হাম্লি দিয়ে পড় কেন ? ওমা ! আমার ভয়ই কোত্তে লাগল ! সুসার । কি ভয় ? কখন ? কি দেখে ? নীল । কি দেখে, তা বুঝতে পাচ্ছ না ? বড় ন্যাক ! বেচারা ঐ রকম সকম দেখে সোরে পোড়লে । আমার এমনি বোধ হল যেন তুমি cগ লাফিয়ে ঘাড়ে পোড়লে । সে তে এমন তেমন চাউনি না ; এই ঠিক যেন বেরালে ইদুর ধরা চাউনি ! সুসার। আপনি ষে ডাইন বাtড়ান মন্ত্র পোড়তে আরম্ভ কোল্লেন দেখি। আকাশ থেকে পোড়ল বুড়ী ন্যাকড় চোকড় এক ঝুড়ি। একটু নর লোকে বুঝতে পারে এমনি কোরে বলুন । নীল। হায় হায় ! একেবারে গে। বেচার ? আচ্ছ, তুমি যথার্থ ৰল দিখি তুমি কিছু বুঝতে পারনি ? সুসার। কি, আপনি বুঝি ঐ যুবতী স্ত্রীলোকটি এই খেনে ছিল, তারই কথা বোলচেন ? নীল । তোমার কি রকম বোধ হয় ?