পাতা:আত্মচরিত (প্রফুল্লচন্দ্র রায়).djvu/২২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


८काzथ एणि टन७म्ना बढ़वकन्नन “সংক্ষেপে, আমি আমার অভিজ্ঞতালব্ধ পরীক্ষিত ও বিশ্বস্ত নীতিগুলি অবলম্বন করিব। এবং সবোপরি আমার মাতার প্রভাব আমাকে সবাদা মহত্তর ও বহত্তর কাজের প্রেরণা দিবে। “এ একটা মহৎ প্রচেষ্টা হইবে । বতমানে জীবনসংগ্রাম বড় কঠোর, সতরাং অধিকতর উৎসাহ ও আনন্দপণ"। “যে ব্যক্তি একক জীবনসংগ্রামে প্রবেশ করে, সে শীঘ্রই বড় বড় প্রতিযোগীদের সম্মুখীন হয়, তাহারা তাহাকে পশ্চাতে ঠেলিয়া দিতে চেষ্টা করে। ” “কিন্তু বর্তমানে সে তাহার ক্ষমতা ও যোগ্যতা প্রমাণ করিবার বহন সুযোগ পাইবে। যে যবেক সাফল্য লাভ করিতে চায়, বাধাবিপত্তি তাহার কাছে কিছুই নয়।”—পিয়াসনসা উইকলি। লর্ড কেবল (১২) এবং লর্ড ইঞ্চকেপ (মিঃ ম্যাকে) নিম্নতম সতর হইতে জীবন আরম্ভ করেন। লর্ড কেবল মাসিক একশত টাকা বেতনের শিক্ষানবীশ ছিলেন। একজন ইংরাজের পক্ষে এই বেতন অতি সামান্য। “যবেকরা গোড়া হইতে কাষ আরম্ভ করিবে এবং অধস্তন পদে কাজ করিবে, ইহাই ভাল ব্যবস্থা। পিটসবাগের বহর প্রধান ব্যবসায়ীকে কম জীবনের আরম্ভেই গুরতর দায়িত্ব বহন করিতে হইয়াছিল। তাঁহাদিগকে প্রথম অবস্থায় আফিস ঘর ঝাঁট দিতে পষতি হইত। দভাগ্যক্রমে বর্তমানে আমাদের যবেকগণ ঐ ভাবে ব্যবসায় শিক্ষার সযোগ পায় না। ঘটনাক্লমে যদি কোন দিন সকালবেলা ঝাড়দার অনুপস্থিত হয়, তবে যে যবেক ভবিষ্যৎ মালিক হইবার যোগ্যতা রাখে সে কখনও ঘর ঝাড় দিতে পশ্চাৎপদ হইবে না। আমি ঐরাপ down TFTE foss to AIRE *Toto, The Empire of Business. “৪৫ বৎসর প্বে একজন নিমালকান্তি, প্রিয়দর্শন ল্যাকাশায়ার যুবক এক মদীর দোকানে কাজ করিত। তাহার দইটি চোখ ভিন্ন বিশেষ ভাবে আকর্ষণের বস্তু আর কিছ ছিল না। যাহার এরপে চোখ, সে কখন সাধারণ লোক হইতে পারে না। কোন শিল্পীই সেই চোখের বিচিত্র বণ ধরিতে পারিত না। এই বালকই ভবিষ্যতে লর্ড লেভারহিউলম হইয়াছিলেন। বিশ বৎসর পাবে জনৈক বোলটনবাসীর মুখে আমি এই বর্ণনা শনি। সে উইলিয়াম লেভার ও তাঁহার পিতাকে চিনিত। বালক এখন একজন প্রধান ব্যবসায়ী এবং ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের মধ্যে অন্যতম শ্রেষ্ঠ ধনী। 希 “পঞ্চাশ বৎসর পবেকার কথা আমার মনে পড়িতেছে। যবেক লেভার অল্পকালই শিক্ষা পাইয়াছিলেন, তার পরই তিনি ব্যবসায়ক্ষেত্রে প্রবেশ করেন।” (লড বাকোনহেড, Contemporary Personalities, sqq ol I) লোহা ও ইস্পাতের ব্যবসায়ে দুইজন প্রধান অগ্রণী হেনরী বেসেমার এবং অ্যানড়: কানেগাঁ। বেসেমার ইস্পাত তৈরী প্রক্রিয়ায় ফগান্তর আনয়ন করেন। “তিনি,ধাতুবিদ্যার (১২) “বাৰ্ড অ্যাণ্ড কোম্পানীর লড’ কেবলের জীবন এই শিক্ষা দেয় যে দঢ় সঙ্কল্প ও ৰোগ্যতা স্বারা নানা বাধাবিপত্তির মধ্যেও সাফল্য লাভ করা যায়। লড কেবল ইংলন্ডে জন্মগ্রহণ করেন, অলপ বয়সে কলিকাতায় আসেন এবং এখানেই যাহা কিছ শিক্ষালাভ কয়েম। ক্রমে ऋभ ठिनि যোগ্যতা বলে ব্যবসায়ক্ষেত্রে সবোচ্চতম শান অধিকার করেন এবং বহু ঐশ্বরব সঞ্চয় করেন। একসময়ে বেঙ্গল চেম্বার অব কমাসের সভাপতির পদেও তিনি —স্টেটসম্যান, ৩১শে মার্চ, ১৯২৭। লড়" কেবল মাসিক একশত টাকা বেতনে শিক্ষানবিশরীপে কাজ আরম্ভ করেন।