পাতা:আমার বাল্যকথা ও আমার বোম্বাই প্রবাস.pdf/২৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


S$ আমার বাল্যকথা D DD BBBB BBBB BBB BBBB BBS BBBB BBBB S BBBBBB BBB ঘরখানি মূল্যবান কাশ্মীরি শাল দ্বারা সজ্জিত করেছিলেন । তখন কাশ্মীরের শাল ছিল ফরাসী স্ত্রীলোকদের একটা অকজণর বস্তু, সুতরাং কল্পনা কর যে তাদের কি অনিৰ্ব্বচনীয় আনন্দ হ’ল, যখন এই ভারতের রাজপুত্রটি বিদায়কালীন প্রত্যেক স্ত্রীলোকের অঙ্গে একখানি শাল জড়িয়ে দিলেন ! ইংলণ্ডে বাসকালীন দ্বারকনাথ একটি মহা পুণ্যকৰ্ম্ম করেন। ভারতের প্রধান ধৰ্ম্মসংস্কারক রাজ রামমোহন রায়েব ভস্ম বিষ্টলেব গোরস্থানে সমাধিস্থ করা হয়েছিল ; BBBBB BB BBB BBB BBB BBB BBB BBBBBS BBB S BBB S BBB তিনি কল্পনাও করেন নি যে, অল্পকালের মধ্যে তাকেও এই রূপ বিদেশে প্রাণত্যাগ করতে হবে । বেদ অামাব বড়ই আশ্চর্যাবোধ হয় যে, যে দেশে বেদেব এত মাহাত্ম্য এবং যা প্রধান ধৰ্ম্মপুস্তক বলে গণ্য, সে দেশে কি না আজ পর্য্যন্ত বেদ ছাপানে হয়নি এবং সকলের তাতে অধিকার ও নেই, কেবল অল্প সংখ্যক পণ্ডিতেব নিকট বেদের কতকগুলি খসড় আছে মাত্র এবং তাই থেকে কেহ কেহ কণ্ঠস্থ করেছেন। সুতরাং পরলোকগত জে, মিয়োর যখন বেদের একটা সংস্করণ প্রকাশ করবার জন্য পুরস্কার ঘোষণা করেন, তখন কোন ভারতবর্ষীয় পণ্ডিত এই কার্য্যে হস্তক্ষেপ করতে সাহস করলেন না । আমি যখন বেদের সংস্করণ প্রকাশ করবার জন্য প্যারিস, বার্লিন ও লণ্ডনের পুস্তকালয়ে বেদের যত খসড়া আছে, নীরবে সব সংগ্রহ করে, তা থেকে নকল করে ধারাবাহিকরূপে গোছ করিতেছিলাম, তখন দ্বারকনাথ খুব আগ্রহ সহকারে আমার কার্য্যাবলী দৰ্শন করতেন। ঠিক সেই সময়েই তোমার পিতা দেবেন্দ্রনাথ চারজন ব্রাহ্মণকুমারকে চতুৰ্ব্বেদ শিক্ষা করবার জন্য কাশতে পণ্ডিতদের কাছে পাঠান। আমি প্রথমে মনে করেছিলাম যে, বুঝি দ্বাবক|নাথ আমার বেদ প্রকাশ সম্বন্ধে পুত্রকে কিছু লিখে থাকবেন, এবং তাই থেকে কাশীতে ছাত্র পাঠাবার কল্পনা তার মাথায় আসে, কিন্তু পরে তার কাছে থেকে যে চিঠি পাই, তাতে জানলাম যে আমার ভ্রম হয়েছিল ; দেবেন্দ্রনাথের বহুদিন থেকেই এরূপ মানস ছিল। বড়ই অক্ষেপের বিষয় যে, কোন ছাত্রই পরে কোন বিশেষত্ব দেখাতে পারে নাই । $ مي