পাতা:আর্য্য-নারী দ্বিতীয় ভাগ.djvu/১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

8 चार्यJ-नांड्री। পুরনারীগণ বিদেশীর হাতে লাঞ্ছিত হইবেন! পবিত্র আর্যনারীর দেহ বিদেশীর কলুষম্পর্শে কলঙ্কিত হইবে! আলোরবাসী একটি পুরুষের দেহে একবিন্দু শোণিত থাকিতে কি, সত্যই আলোর-পুরনারী বিদেশীর দাসী হইবে ? এ কলঙ্ক যে, চিরদিন ভারতের ইতিহাসে ভারতবাসীকে হীন কারিয়া রাখিবে ! কেহ কি নাই, যে, আলোরের জীবিত-বিধ্বস্ত সৈন্যগণকে একত্র করিয়া আবার তাহদের প্রাণে সাহস সঞ্চারিত করে-শেষ মরণ-পণে আলোরের মর্য্যাদা রক্ষা করে ? অন্তরের অন্তরে দাববহ্নি জ্বলিল,-দাহির-পত্নী পতিশোক ভুলিলেন । পুত্রের কাপুরুষতার দারুণ লজ্জার বেদনা প্রাণে চাপিয়া রাখিলেন । অবিলম্বে, ভীমা, ভৈরবী রণরঙ্গিনী বেশে অশ্বারোহণে আলোরের রাজপথে আবিভূতি হইলেন । আলোর রাজ্য চমকিল । রণরঙ্গিনীর গভীর ভীম হুঙ্কারে অ্যালোরবাসী স্তম্ভিত হইল। বীরাঙ্গনার বীর-আহবানে ভীতবিধ্বস্ত ও পলায়িত সৈন্যগণ আশ্চর্য্য মানিয়া নূতন সাহসে র্তাহার চারিদিকে আসিয়া ঘিরিয়া দাড়াইল । পুরবাসীরা গৃহ ছাড়িয়া অস্ত্র লইয়া সৈন্যগণের পার্শ্বে আসিয়া দাড়াইলেন। রাণী সকলকে সম্বোধন করিয়া কহিলেন,-“সৈন্যগণ! পুৱাবাসিগণ! যে যেখানে আছ, আজ শৌন !—শোন, তোমাদের বীররাজা নিহত, অধম রাজপুত্র পলায়িত। কিন্তু ভয় পাইও না। আমি আছি,-রাজার রাণী আমি, বীরের সহধর্ম্মিণী আমি—আজি তোমাদিগকে যুদ্ধে বলদান করিব। আমি