পাতা:ইঞ্জিল মুকদ্দস্‌.djvu/৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


I go লোকদের সাথে ॥ আর দেখ ইসা মসী বেগর তমসিলে । কহিল না কোন বাৎ তাদের সকলে ॥ “ খুলিব আপন মুখ । “ তমসিলের সাথে । তাহাতে এ দুনিয়ার পএদাস হইতে ॥ “ পোষিদ যে সব বাৎ আছিল আখের। সেই সব বাং মুই “ করিব জাহের।” নবীর মারফতে এই নবুয়ৎ ছিল । ইহাতে করিয়া তাহা পুরা যে হুইল ॥ ৰূখশদ দিয়া ফের সব লোকগণ । দাখেল হুইল ইস ঘরেতে যখন ॥ শাগরেদের এসে কহে জঙার খেতের । তমসিল ভাঙ্গিয় বল করিয়া মেহের ॥ কহিলেন ইসা আচ্ছা বীজ বুনে যেই । আদমির বেটা দেখ হয় ঠিক সেই ॥ এই ত দুনিয়া থেত, ও বাদশাহতের । ফজন্দের আচ্ছ বীজ করিনু জাহের। আর জঙী বীজ হয় শৈতানের সন্তান । যে দুষ্মন বুনেছিল সেই ত শৈতান। কাটনের ওক্ত হয় দুনিয়ার আখের । কাটুনিয়া ফেরেস্তারা যত আত্মানের ॥ জমায়া জালায় জঙী লোকেরা যেমতে । দুনিয়ার আখেরিতে হবে সে ছুরতে ॥ ভেজিবে ফেরেস্তাগণে আদমির কুণ্ডার । তার বাদৃশাহৎ হুৈতে তাহারা আবার ॥ রোখনেওীল লোক আর রদকারী সবে । জমা কর্যে আগুনের তুহুরে ডালিবে ॥ দাতের কিড় মিড়ি আর কান্না বেশুমার । সেইত জাএগাতে দেখ হুইবে আবার ॥ বাপজির বাদশাহতে নেকী লোক সবে । আসমানের অীপতাপের মাফেক চমকিবে ॥ শুনিবার তরে কান আছয়ে যাহার । শুনে লিক সেই শকশ এ বাৎ আবার ॥ পোশিদা দৌলতের তমসিল । ছিপপায় দৌলত কেহু খেতেতে দেখিয়া । পোশিদ