পাতা:ইন্দুমতী - যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/১৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৬৮
ইন্দুমতি।

রাধিকা গম্ভীরা হ’য়ে চাহি এক দৃষ্টে
রহিল নদীর পানে। নবীন কাঁদিল
প্রথমা বনিতা স্মৃতি করিয়া স্মরণ।
 দেখিতে ধীবরে পুনঃ দেবব্রত তবে
নামিল তরণী হ’তে। নবীন এখন
পূর্ণরূপে রোগ মুক্ত,হাঁটিতে সক্ষম,
দেবব্রত সাথে সাথে চলিলেন তীরে।
 যথাকালে গেল তা'রা ধীবর কুটিরে,
পর্ণের কুটির কিবা দেখিতে সুন্দর!
ধীবর দেখিয়া তাঁ’রে,পরম উল্লাসে
আসিল নিকটে,নিজ পুত্রকন্যাসহ।
একে একে শুধাইল তাঁহার বারতা,
বলিল অনেক কথা।বলিল তাঁহাকে,
“রাণীমার অনুচর এসেছিল হেথা
করিতে সন্ধান তব চলে গেলে তুমি।
শুনিয়া সকল কথা সেই অনুচর
আমারে লইয়া গেলে রাণীমা প্রাসাদে,
ভাগিরথী পরপারে।নিদর্শন তব
সুবর্ণ অঙ্গুরী সেই চাহিয়া লইয়া,
দিল বহু ধন মোরে বিনিময়ে তা’র,
বলিল করিতে আর তোমার সন্ধান।”
 বিস্মিত হইয়া শুনি এই সব কথা