পাতা:ইন্দুমতী - যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
১৫
দ্বিতীয় সর্গ।

 এ হেন সময়ে দাসী কহিল তাঁহারে,
“নাহিক দুৰ্য্যোগ এবে, প্রহর হইল নিশা
আজি কি মা সান্ধ্য-স্নান করিবে না তুমি?”
তখন চমকে চাহি কহিলা রাণীমা
“লহ বাস সঙ্গে এস চল যাই স্নানে৷”
 উঠিয়া তখন ধীরে গজেন্দ্ৰ গমনে
চলিলেন রাণী মাতা সেবিকা সহিত,
স্নান করিবার হেতু গঙ্গার সলিলে।
উপর হইতে নিম্নে আসিয়া প্রাঙ্গণে,
তথা হতে ধীরে ধীরে আসি উপস্থিত
সলিল সমীপে সেই সোপান উপরে।
দুকূল করিয়া পূৰ্ণ, দেখিলেন তিনি,
নীরব প্রবাহে জল যেতেছে বহিয়া।
পূরব গগনে শোভে একটি চন্দ্ৰমা,
অসংখ্য চন্দ্ৰমা যায় সলিলে ভাসিয়া।
 সোপানের সর্ব্ব শেষে আসিয়া রাণীমা
দেখিলেন ও কি? ভয়ে শিহরিয়া উঠি?
পশ্চাতে আছিলা দাসী ডাকিলেন তা’রে,
“নেমে আয়, দেখ একি রয়েছে হেথায়৷।”
 বিস্ময়ে দেখিল দোঁহে একটি সুন্দরী,
সলিলে অৰ্দ্ধাঙ্গ তার অৰ্দ্ধাঙ্গ সোপানে,
মৃণাল নিন্দিত ভুজে রাখিয়া মস্তক,