পাতা:ইন্দ্রচন্দ্র.pdf/১৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


లిe ইন্দ্রচন্দ্র । বললেন “শাহ আমার অভাগার মুখ খানি যেন কেটে বসিয়েচে ।” - বালকের সেদিকে কান নাই ; যুবতীর কাপড় ধরিয়া মাবার টানিল । বলিল “দাওনা মা একটা পয়সা দাওনা ম৷” । “আমার কোলে এস তোমাকে চারটে পয়সা দিব” বলিয়। যুবতী হস্ত প্রসারণ করিলেন। আর বালক ! বালক অমনি যুবতীর ক্রোড়ে উঠিল। কে যেন যুবতীর মস্তক ধরিয়। বালকের মুখের দিকে ঠেলিয়া দিল। আর থাকিতে না পারিয়া;"এস বাবা এস’ বলিয়া যুবতী বালকের গণ্ডে চুম্বন করিলেন। “আঃ অভাগী কার ছেলে কোলে নিয়েচিস, এথনি কেড়ে নেবে’ বলিয়া অৰ্দ্ধবয়সী চক্ষের জল মুছিলেন । যুবতী বালককে ক্রোড়ে করিয়া এক হস্ত দ্বারা জড়াইয়। ধরিয়া ছিলেন, অৰ্দ্ধবয়সীর কথা শুনিয়া দুই হস্তে দৃঢ় আলিঙ্গনে ধরিলেন । মুথের কাছে মুখ রাখিয়া জিজ্ঞাস করিলেন “তোমার আর কে আছে বাবা ?” বালক মধুর স্বরে উত্তর করিল “আমার মা অাছে।” যু। “কোথায় আছে ?” ব। । ‘মন্দিরের কাছে ভিক্ষে কর চে * , “চলন। ম। এর মাকে দেখে আসি’ যুবতী অৰ্দ্ধবয়সীর দিকে সাশ্র নয়নে কহিলেন । - অৰ্দ্ধবয়সীর বধূগত প্রাণ ; বলিলেন “চল মা চল ।” যুবতী বালককে ক্রোড়ে করির অগ্ৰে অগ্ৰে চলিলেন ; পশ্চাৎ শ্বশ্রু ঠাকুবাণী চলিলেন । সৰ্ব্ব পশ্চাৎ দাসী এবং ভূত্যের চলিল । r জগন্নাথ দেবের মন্দিরের নিকট উপস্থিত হইয়t