পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/১০৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


。b" ঐতিহাসিক চিত্ৰ । কয়েকটি নাম ধাম ব্যতীত আর সকলই প্ৰায় ঔপন্যাসিক। বঙ্কিম বাবু স্বয়ং বলিয়া গিয়াছেন “সীতারাম ঐতিহাসিক ব্যক্তি ; এই গ্রন্থে সীতারামের ঐতিহাসিকতা কিছুই রক্ষা করা হয় নাই। গ্রন্থের উদ্দেশ্য ঐতিহাসিকতা নহে।” কিন্তু সে ভূমিকার কথা। ভূমিকাতেই আছে ; লোকে তাহ শুনে না বা মানে না। “একে উপন্যাস, তাহাতে বঙ্কিমের অব্যৰ্থ সন্ধান, সুতরাং লক্ষ্যবিদ্ধ হইতে কিছুমাত্ৰ বিলম্ব হয় নাই।”* যশোহর জেলায় মাগুরা সব ডিভিসনের অন্তর্গত মহম্মদপুর নামক স্থানে স্বাধীন রাজা সীতারাম রায়ের রাজধানী ছিল । এখনও তথায় তাহার কীৰ্ত্তিকলাপ জাজ্বল্যমান ভাবে " বৰ্ত্তমান আছে। শ্ৰীযুক্ত বঙ্কিমবাবু কিছুদিন মাগুরার ডেপুটী মাজিষ্ট্রেট ছিলেন ; তখনই তিনি একদা সীতারামের কীৰ্ত্তিরাজি দেখিবার জন্য মহম্মদপুরে যান এবং তথাকার শ্ৰী রাইচরণ মুখোপাধ্যায় নামক এক গল্পপর কৰ্ম্মকুশল ব্যক্তির নিকট হইতে সীতারাম সম্বন্ধে অনেক গল্প গুজব শুনিয়া স্বীয় প্ৰতিভাবলে অল্পদিন মধ্যেই “সীতারাম” উপন্যাস প্ৰকাশ করেন। ঐতিহাসিকতা লইয়া বিচার না করিলে, “সীতারাম” পুস্তক যে সাহিত্যজগতে উচ্চাসন অধিকার করিয়াছে, ইহা নিঃসন্দেহে বলা যায়। উপন্যাস হইতে সীতারামের মহত্ব, বীরত্ব, সাহসের যথেষ্ট পরিচয় পাওয়া গেলেও সঙ্গে সঙ্গে সুস্পষ্টরূপে ইহাও প্ৰতিপন্ন হইয়া রহিয়াছে যে, সীতারাম অত্যন্ত বিলাসী, ইন্দ্ৰিয়পরতন্ত্র ও নারীগতপ্ৰাণ ছিলেন। “সীতারামী সুখ” বলিয়া একটা প্ৰবাদ বাক্য প্রচলিত আছে ; প্ৰধানতঃ সেই প্ৰবাদ বাক্যের উপর ভিত্তিস্থাপন করিয়া বঙ্কিমচন্দ্ৰ সীতারাম বিগ্ৰহ নিৰ্ম্মাণ করিয়াছিলেন। সে বিগ্রহের মধুর ইতিহাস লোকে সাগ্রহে পাঠ করিতে করিতে অবাস্তবের দিকে এতদূর অগ্রসর হইয়া পড়িয়াছে যে, সীতারামের অন্য যাবতীয় গুণ র্তাহার ইন্দ্ৰিয়পরতন্ত্রতার মধ্যে বিলীন হইয়া গিয়াছে। সীতারামের বিলাসিত বা ইন্দ্ৰিয়সেবা থাকিতে পারে ; কোন রাজার ছিল না ? তবে ইন্দ্ৰিয়সেবা তাহার চরিত্রের

  • गांश्ऊि, १७०२ । कठिंक (वैश्र्द्र्भांब ऐभt)