পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (প্রথম বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/২৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


̈ ማ°jsርጫö ! RRG ইহার পরেই জগৎশেঠ ফতেচাদের সহিত সরফরাজের ঘোরতর মনোবিবাদ উপস্থিত হয়। এই মনোবিবাদসম্বন্ধে সাধারণতঃ দুই প্ৰকার বিবরণ দৃষ্ট হয় । ইংরাজ ঐতিহাসিকগণ এই বিষয়ে যাহা বলিয়া থাকেন, প্ৰথমতঃ তাহারই উল্লেখ করা যাইতেছে । জগৎশেঠ ফতেচাদের পৌত্র - মহাতপচাদের সহিত একটি লাবণ্যবতী বালিকার বিবাহ হয়, তৎকালে ধনকুবের জগৎশেঠ-বংশীয়গণের নাম ভারতের সর্বত্রই বিঘোষিত হইত, ಇಡ್ಲಿ? শেঠজাতীয়েরা সকলেই জগৎশেঠবংশের সহিত কোন না কোন সম্বন্ধে আবদ্ধ হইতে সৰ্ব্বদা চেষ্টা করিতেন । জৈন সম্প্রদায়মধ্যে যে সমস্ত সুন্দরী কন্যা ছিল, তাহারা প্ৰায়ই জগৎশেঠদিগের কুলবধুরূপে আনীত হইত। বিশেষতঃ জগৎশেঠগণ। জৈন সম্প্রদায়ের মধ্যে সামাজিক বিষয়েও শ্রেষ্ঠ হওয়ার তাঁহাদের পক্ষে আদান প্ৰদানের কোনরূপ বাধা উপস্থিত হইত না । মহাতপচাদের সহিত যে বালিকার পরিণয় সংঘটিত হয়, তৎকালে তাহার ন্যায় সুন্দরী কন্যা। এতদঞ্চলে আর দ্বিতীয় ছিল না বলিয়া শ্রুত হওয়া যায় । এরূপ রূপবতী কন্যা যে শেঠবংশের গৃহলক্ষ্মী হইবেন তাহাতে আর আশ্চৰ্য্য কি ! মহা শুপচাদের বিবাহ মহাসমারোহে সংসাধিত হইয়াছিল । ফতেচাদ পৌত্রের বিবাহে অজস্র অর্থব্যয় করিয়াছিলেন । সেরূপ সমারোহ মুর্শিদাবাদের লোকেরা অতি অল্পই দেখিয়া থাকিবে। উক্ত বিবাহ সম্পাদিত হইলে সেই অনিন্দ্যসুন্দরী বালিকার প্রসঙ্গ লইয়া মুর্শিদাবাদের সর্বত্র আলোচনা হইতে লাগিল, ক্ৰমে তাহার অলৌকিক লাবণ্যের কথা নবাব সরফরাজের কৰ্ণগোচর হয় । সরফরাজ । তাঙ্গার রূপ প্ৰশংসা শ্রবণ করিয়া এ তদুর কৌতুহলপরবশ হইয়া পড়েন যে, সেই বালিকাকে দেখিবার জন্য যার পর নাই উৎসুক হন । কিন্তু সে যে পরিণীতা ও সন্ত্রান্তবংশের গৃহবধু। সে বিষয়ে বিবেচনা করার ক্ষণমাত্র অবকাশ পাইলেন না । নবাব প্ৰথমতঃ জগৎশেঠকে আহবান করিয়া পাঠান । জগৎ শেঠ তাহার নিকট উপস্থিত হইলে, সরফরাজ সেই বালিকার দর্শনের ইচ্ছা প্ৰকাশ করেন, নবাবের সেই ভয়াবহ প্ৰস্তাব শুনিয়া অশীতিপর বৃদ্ধ জগৎশেঠের মস্তকে অশনিসম্পাত হইল । তিনি নবাবকে উক্ত বিষয় হইতে SC