পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র - পঞ্চম পর্য্যায়.pdf/৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বগুড়া জেলার ঐতিহাসিক উপকরণ । 8 সেরপুরে হিন্দু মুসলমানের পরস্পর প্রীতির পরিচয় দেখা যায়। সেরপুর হিন্দু প্ৰধান স্থান হইলেও মুসলমান মহাপুরুষদিগের আস্তানা বা থান। ইহার সর্বস্থানে দেখতে পাওয়া যায় ; যথা-তুরিকান সহীদের দরগা, LLLLLD KKS DBB S KBSKBD DLDLL0K KBDS ggS DK DS রের থান । এই সকল ব্যতীত ছোট ছোট বহুসংখ্যক দরগা আছে ; যেমন, লক্ষ্মীতলায় উত্তর চৌরাহার নিকট একটি, দক্ষিণপাড়ায় একটী, বেনেপাড়ায় একটা এইরূপ আরও অনেকস্থানে আছে । ইহার সকল: গুলিই হিন্দু পুরুষ ও স্ত্রী উভয়েরই সম্মান পাইয়া থাকেন। সেরপুরের সকল জমিদারই পুণ্যাহের সময় যেমন গোবিন্দ রায় প্রভৃতি হিন্দু দেবতাকে সন্দেশ বা তাসা ও প্ৰণামী আদি দিয়া ভক্তি করেন, সেইরূপ সেরপুরের প্রত্যেক জমিদারই এই তুরকান সহীদের দরগায় সিরনি দিয়া, থাকেন। সেরপুরের হিন্দুগণ ছেলের অন্নপ্রাশনের চুল, স্যা মাদারের থানের নিকট দিয়া থাকেন । জ্যৈষ্ঠ মাসে নিশানের পূর্বে হিন্দুগণ বেশভূষায় সজ্জিত হইয়া আজিও হটলা, মিঞা ( গাজি মিঞা ) প্ৰভৃতির। নিকট “বন্দি” ( মালাবদল) পরিয়া থাকেন ও সিরনি, ফলমূল এবং SSLDS SSiTDt tt DuTk BDDD S KEBDY S DBB BKStKEDD পৰ্ব্বকে হিন্দুরা যেন নিজ পর্ব মনে করেন এবং যে মাঠে বা জঙ্গলে যেদিন নিশান লইয়া যাওয়া হয়, অধিকাংশ হিন্দুহ বেশভূষায় সজ্জিত হইয়া, সেই সেই স্থানে গিয়া মচা উৎসাহ ভরে নিশান-নাচ ইত্যাদি অদ্ব্যাপিও, দেখিয়া থাকেন এবং মুঠা মুঠ সিরানি লইয়া হিন্দু স্ত্রী পুরুষে নিশানকে লক্ষ্য করিয়া নিক্ষেপ করেন। এমন কি ছোট ছোট দরগা গুলিও হিন্দুর ভক্তিতে বঞ্চিত হয়েন না । দীপান্বিত, বা অন্যান্য পৰ্ব্ব উপলক্ষে হিন্দুলিলনাগণ যেরূপ মল্লিকা সহিত দেবালয়ে দেবালয়ে দীপ দিয়া থাকেন, সেইরূপ এই দরগাগুলির সম্মুখেও মহা ভক্তিভরে সজ্জিত করিয়া রাখিয়া DLDDLS DDKg DBDB BBDBBDBD DBDBB D DDBBDB EEBDDB DS