পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/১২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তৃতীয় অধ্যায়। b۹ س নৰকৰ হইয়াছিলেন। অন্ত পক্ষে—কেদাররায়, মানসিংহকে স্ত্রপুর জয়ে বিশেষ কষ্ট দিয়াছিলেন। প্রতাপাদিত্যের জীবনী-কথা, এক্ষণে তিন চারি খানি পুস্তকে লিপিবদ্ধ হইয়া, তাহার নাম সাধারণের নিকট পরিচিত করিয়াছে। ভারতচন্দ্রের যশোর নগর ধাম, প্রতাপ-আদিত্য নাম, : মহারাজ বঙ্গজ কায়স্থ । নাহি মানে পাতশায়, কেহ নাহি আঁটে তায়, ভয়ে যত ভূপতি দ্বারস্থ ॥ i বর পুত্র ভবানীর, প্রিয়তম পৃথিবীর, ; বাহান্ন হাজার যার ঢালী । : ষোড়শ হলকা হাতি, অযুত তুরঙ্গ সাথী, যুদ্ধকালে সেনাপতি কালী ৷ কিন্তু বিক্রমপুরাধিপতি কেদাররায়ের কাহিনী, এখনও সম্পূর্ণভাবে সাধারণের নিকট প্রচলিত হয় নাই । তাহার জীবনের ঘটনা অবলম্বনে এ পর্যন্ত কোন কাব্যাদি রচিত হয় নাই। মাত্র—একখানি ঐতিহাসিক নাটকে, তাহাদের কীৰ্ত্তি-কথা বিবৃত হইয়াছে। এইজন্য, বৰ্ত্তমান প্রসঙ্গে আমরা চাদরায় ও কেদাররায় সম্বন্ধে দুই চারি কথা সংক্ষেপে বলিব । পূৰ্ব্ব বাঙ্গালায়—বিক্রমপুর প্রদেশের অধিপতি, এই চাদরায় ও কেদার রায়। প্রপুর, তাহদের রাজধানী ছিল। প্রসিদ্ধ পটুগীজ ভ্রমণ-কারী ফাৰ্ণাণ্ডেজ সাহেব, ষোড়শ শতাব্দীতে, প্রতাপের যশোহর ও চাদরায়ের শ্ৰীপুরের সম্বন্ধে অনেক কথা বলিয়া গিয়াছেন। তাহ হইতে প্রমাণ হয়,শ্রীপুর রাজধানী অতি ঐশ্বৰ্য্যময়ী অবস্থায় ছিল। ফাৰ্ণাণ্ডেজ-আরাকান, খ্ৰীপুর (চতীপুর), চতীখা (যশোহর) এই তিনটা রাজ্যকে প্রধান বলিয়া গিয়াছেন। তিনি বলেন—“মোগলদের প্রবল পরীক্রম সত্ত্বেও, ঐ দুই প্রদেশাধিপতিগণ যথেষ্ট প্রভুত্ব উপভোগ করিতেন। বিশেষতঃ চওঁীখান ও ভ্রপুরাধিপতির, মোগল-অধীনতা স্বত্বেও স্ব স্ব রাজ্যে সৰ্ব্বময়কর্তা ছিলেন । * ঐপুর—গগনস্পশী অতুল্য হর্শ্যমালায় মুশোভিত ছিল। রায়-রাজগণ, বহু বত্বে ও চেষ্টায় পুরে সমাজগঠন ও নগর নির্শ্বাণ করিয়াছিলেন । বিক্রমপুরের চাদরায় ও কেদাররায় সেই সময়ে, বিক্রমপুর-সমাজের অধিপতি

  • Early Travels in India-By Fernandez, P. 3 & 11..