পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/২১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ృao কলিকাতা সেকালের ও একালের । বলিয়া ভয় দেখাইলে, মোগল-মুবাদার—ইংরাজদের আর কোন ངག་གི་ চেষ্টা করিলেন না । * অঙ্গিয়ার বোম্বের মধ্যে একটা টাকশাল প্রতিষ্ঠিত করেন। সমগ্র বোম্বেবাসী হিন্দু মুসলমান ও পৰ্টুগীজ তাহদের প্রজা । বোম্বাই তখন ইংরাজের খাস-জমিদারী। ইংলণ্ডের সম্রাটের বিবাহ-প্রাপ্ত যৌতুক । কাজেই ইংরাজের এই টাকশাল স্থাপন সম্বন্ধে, মোগলপক্ষ কোনরূপ আপঞ্জি করিতে পারিলেন না । ইংলণ্ডেশ্বর দ্বিতীয় চাল সও, এসম্বন্ধে ইষ্টইণ্ডিয়া কোম্পানীকে অনুমতি দান করিলেন । ধরিতে গেলে, ইহাই ভারতে ইংরাজের প্রথম টাকশাল । * ইংরাজের অঙ্কিত মুদ্রাগুলি, ভারতের পশ্চিম উপকূলে খুৰ বেশী ভাবে চলিতে লাগিল। টাকাগুলির ওজন খাটী এবং খাদও কম, কাজেই ব্যবসায়ীরা ইংরাজের সহিত এই মুদ্রার বিনিময়েই দ্রব্যাদির আদান প্রদান করিতে লাগিল । “সাহী” মুদ্রার একদিকে, পারশী লেখা ছিল বলিয়া, মোগল-মুবাদার এজন্য একটু আপত্তি করিয়া বসিলেন। কিন্তু সে আপত্তি টিকিল না । অঙ্গিয়ারের যতই দোষ থাকুক না কেন, তিনি সেই প্রাচীন কালের ইংরাজের আদর্শ ছিলেন । ধরিতে গেলে, তিনি রাজবুদ্ধি লইয়। জন্মিস্থা ছিলেন । হিন্দু মুসলমান প্রজার প্রতি, তিনি অতিশয় সমবেদন পূর্ণ ছিলেন । র্তাহার সম-সামায়িক বৃত্তান্ত হইতে, আমরা তাহার সম্বন্ধে নিম্নলিখিত কথা গুলি তুলিয়া দিলাম । “অঙ্গিয়ার একজন রাজনীতিজ্ঞ পুরুষ ছিলেন । তিনি দেশীয় প্রজাবর্গের প্রধানগণকে একত্রিত করিৰার জন্য, একটা সমিতি সংগঠন করেন। পটুগীজদিগের আমলে, প্রজারা জমীর উৎপন্ন দ্রব্যের এক চতুর্থাংশ কর স্বরূপ প্রদান করিতে বাধ্য হইত। অঙ্গিয়ার বাৎসরিক একটা টাকা বৃত্তি লইয়া, প্রজাকে এই করভার হইতে মুক্ত করেন। যাহাতে প্রজাগণ, কৃষকগণ, তাহীদের পরিশ্রমের ফল পূর্ণরূপে উপভোগ করিতে পারে, ক্ষেত্রের উৎপন্ন দ্রব্যের সম্বন্ধে বেশী লাভবান হইতে পারে, তিনি তাহারও বন্দোবস্ত করিয়া দেন। যাহাতে

  • বোম্বে টাকশালে নিম্ন লিখিত মুদ্রগুলি প্রস্তুত হইয়াছিল। ' '

( ১ ) জেরাফিল-মূল্য ১ শিলিং ৮ পেন্স (২) পারসী সাহী, ৪ শিলিং (কাসগারের সহিত বাণিজ্য জন্য) (৩) প্যাগড , ৯ শিলিং (কালিকটের সহিত বাণিজ্য জন্য)