পাতা:কলিকাতা সেকালের ও একালের.djvu/৬৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সমাধিস্থ হইলেন। দাযুদ্ধ-মুনাইম-খণর মৃত্যু-সংবাদ পাইয়া, পুনরায় সমস্ত সৈন্ত একত্রিত করিয়া, মোগল-দিগকে আক্রমণ করিলেন। বিজনী দারুল, মোগলদিগকে আকমহল (বর্তমান রাজমহল ) হইতে তাড়াইয়া দিয়া, আকমহল-দুর্গ দখল করিলেন । পুনরায় পাঠানগণ বিজয়ী হইয়াছে শুনিয়া, দিল্লীশ্বর আকবরসাহ দায়ুদের উচ্ছেদের জন্ত, খাজাহান-হোসেন-কুলী, মজঃফর খর্ণ প্রভৃতি প্রসিদ্ধ সেনাপতিগণকে যুদ্ধে প্রেরণ করেন। মজঃফর-খণর সহিত শেষ যুদ্ধে, বঙ্গের পাঠান রাজা দান নিহত হন। মজঃফর ধ।--তাহার ছিন্থও আকবরসাহের নিকট দিল্লীতে পঠাইয়া দেন দাযুদের মৃত্যুতে, বঙ্গে স্বাধীন পাঠান-রাজত্বের চির বিলোপ হইল। গৌড়ের রাজলক্ষ্মী জন্মের মত চলিয়া গেলেন । দায়ুদের মন্ত্রী, বিক্রমাদিত্য ও বসন্তরায় সন্ন্যাসী-বেশে পলায়ন করিলেন । মোগল-অধিকারে কিরূপ নূতন ৰন্দোবস্ত হয়, তাহ দেখিবার জন্য র্তাহারা যশোরে ফিরিয়ান গিয়া, ছদ্মবেশে বরেন্দ্ৰ-ভূমিতেই লুকাইয়া রহিলেন । নববিজিত বঙ্গের শাসন-শৃঙ্খলা সমাধানের জন্ত—দিল্লীশ্বর আকবর সাহ—মহারাজ টোডরমলকে বঙ্গদেশে প্রেরণ করেন। ১৫৮৯ খ্ৰীঃ অৰে টোডরমল বুঙ্গদেশে উপস্থিত হন। রাজা টোডরমল, উন্নতচেত, চরিত্রবান, স্বক্ষদর্শী, স্থায়নিষ্ঠ, শাসনকর্তা ছিলেন । রাজকাৰ্য্যেই যে কেবল তিনি চাণক্য-সদৃশ বুদ্ধিমান ছিলেন, তাহ। নহে, তাহার মত সমর-কুশল বীরও সে সময়ে অতি অল্পই ছিল । এই জন্তই বাদসাহ, সকল বিষয়েই তাহাকে দক্ষিণ হস্ত স্বরূপ বিবেচনা করিতেন। টোডরমল বাঞ্জলায় অসিয়া বুঝিলেন—বঙ্গদেশের অরাজকতা দূর করা বড় সহজ কাজ নহে। বাঙ্গলায় তিদিন অবস্থানের পর, রাজা টােডরমল স্পষ্টই বুঝিতে পারিলেন-বিদ্রোহী পাঠানগণকে দমন করিতে হইলে, আঞ্জে বঙ্গের জীদারদের হস্তগত করা প্রয়োজন । জৰ্মীদার ও প্রজা-ঈশ্বন্ধে কোনরূপ সুশৃঙ্খল বন্দোবস্ত না করিলে, মোগল রাজ-সরকারের ষথেষ্ট জর্থ ক্ষতির সম্ভাবনা । বঙ্গীয় জমীদারগণ, মোগল-সরকারের নিকট মৌখিক আনুগত্য স্বীকার করিলেও, ভিতরে ভিতরে তাহারা পাঠান বিদ্রোহীগণকে সাহায্য করিতেছিল। এ সাহায্য করার কারণ অমুসন্ধান করিত্বে গিয়া, মহামতি টোডরমল দেখিলেন, " অর্থের আশাতেই, জমীদারের বিদ্রোহীগণকে ধিগুণ মূল্যে পুস্ত ও রসদাদি &