পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/২৪৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিত্র আনন্দে ব্যাপায়ে জলে পড়ে বারম্বার কলহাস্তে ; ধৈর্য্যময়ী মাতার মতন পদ্মা সহিতেছে তা’র স্নেহজালাতন । তরী হতে সম্মুখেতে দেখি দুই পার ; স্বচ্ছতম নীলাভ্রের নিৰ্ম্মল বিস্তার ; মধ্যাহ্ন-আলোকপ্লাবে জলে স্তলে বনে বিচিত্র বর্ণের রেখা ; আতপ্ত পবনে তীর-উপবন হ’তে কতু আসে বহি আম্রমুকুলের গন্ধ, কৰ্ভু রহি রহি র শ্রান্ত স্বর | আজি বহিতেছে প্রাণে মোর শান্তিধারা ; মনে হইতেছে স্থখ আতি সহজ সরল, কাননের প্রস্ফুট ফুলের মত, শিশু-আননের হাসির মতন,—পরিব্যাপ্ত বিকশিত : উন্মুখ অধরে ধরি চুম্বন-অমৃত চেয়ে আছে সকলের পানে, বাক্যহীন শৈশব-বিশ্বাসে, চিররাত্রি চিরদিন । বিশ্ব-বীণা হ’তে উঠি’ গানের মতন রেখেছে নিমগ্ন করি নিথর গগন ; সে সঙ্গীত কি ছন্দে গাঁথিব ; কি করিয়া শুনাইব, কি সহজ ভাষায় ধরিয়া ২৩০