পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৪৫১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


པོ་ཆེ་ཕི་ স্বামিগণ, যাইতেছ বন, t আমি মাগি এক ভিক্ষ ॥ নষ্ঠ নন্দন, আমার জীবন, তুমি জান ভালমতে । জে বালক, বনে মহাদুঃখ, সদ। দেখিব৷ স্নেহেতে ॥ ੋੜ দেহ, { আপনি করিবা তুমি । ” # ইহা বলি, . তা পড়িল ভুমি ॥ চত্র সঙ্গীত, শ্রবণে অমৃত, পাণ্ডবের বনবাস । শীদাস কহে, পূর্ব পাপ দহে, পুরাণে কহিল ব্যাস ॥ পাণ্ডবদের বন প্রস্থান ও ধৃতরাষ্ট্রের প্রশ্ন । শাশুড়ীর দুঃখ দেখি দ্রৌপদী কাতর। চতন করি কহে যুড়ি দুই কর ॥ ঠ উঠ মহাদেবি না বাড়াও শোক । করি শোচনা না করে জ্ঞানীলোক ॥ জ্ঞা কর বনে যাব সহ স্বামিগণ । আজ্ঞা করিব তুমি করিব পালন ॥ ত বলি স্বামী সহ চলে বনবাস । ফ্র অশুজল বহে মুক্ত কেশপাশ ॥ ছু পাছু ধায় তবে ভোজের নন্দিনী । ঘগণ দেখি দেবী হৃদে হানে পাণি ॥ টমুণ্ডে দাণ্ডাইল পঞ্চ সহোদর। দিকে হাসে যত কৌরব-কোঙর ॥ দিন করয়ে যত মুহৃদ স্বজন । p ভাই বিবজ্জিত বস্ত্র আভরণ ॥ খিয়া পড়িল শোক-সাগর অগাধে । শ্রুজলে পরিপূর্ণ কহে গদগদে ॥ প্রতি নিষ্পাপী সত্যাচারী যে উদার। র হেন দেখি বিধি এ কোন বিচার। সবাকার কিছু না দেখি অধৰ্ম্ম । ম বুঝি এই পাপ মম গর্ভে জন্ম ॥ মহাকালেন চ সমং বিপরীত-রতাছুয়াং I of [ মহাভার"sy অভাগিনী পাপী আমি জনম দুঃখিনী । –

মম দোষে এত দুঃখ মনে অনুমানি ॥

তেজে বীৰ্য্যে বুদ্ধে ধৰ্ম্মে কেহ নহে ন্যন । ত্ৰিজগৎ খ্যাত যেই পুত্ৰ সৰ্ব্বগুণ ॥ হেন বীৰ্য্যবন্তে বৈরী বেড়ি চারিপাশে । রাজ্যধন লইয় পাঠায় বনবাসে ॥ প্রাণাধিক স্নেহ, ; পূৰ্ব্বে যদি জানিতাম এ সব বারতা । শতশৃঙ্গ হইতে কি আসিতাম হেথা ॥ যেমন বাতুলী, . বড় ভাগ্যবান পাণ্ডু স্বৰ্গবাসে গেল । পুত্ৰগণ এত দুঃখ চক্ষে না দেখিল ॥ সঙ্গে গেল ভাগ্যবতী মদ্রের নন্দিনী । আমি না গেলাম সঙ্গে অধম পাপিনী ॥ তাহার সদৃশ তপ আমি না করিনু । পাপ হেতু কষ্ট আমি ভুঞ্জিতে রহিনু ॥ লোভেতে রহিনু পুত্ৰগণেরে পালিতে । তাহার উচিত হৈল এ দুঃখ দেথিতে ॥ হে পুত্র আমারে ছাড়ি না যাহ কাননে ।. কৃষ্ণ তুমি আমা ছাড়ি বঞ্চিবে কেমনে ॥ বিধি মোরে বান্ধিলা এ দুঃখের নিগড়ে । সেই হেতু পাপ আয়ু আমারে না ছাড়ে । হায় পাণ্ডু মহারাজ ছাড়িল আমারে । অনাথ করিয়া সাধু স্বপুত্ৰগণেরে ॥ ওরে পুত্র সহদেব ফিরি চাহ মোরে । করূপে আমার মায়। ছাড়িলে অন্তরে ॥ তিলেক না বাচি তোম না দেখি নয়নে । কেমনে রহিবে প্রাণ তোমার বিহনে ॥ ভাই সব যদি সত্য ল পারে ছাড়িতে । সবে যাক তুমি রহ আমার সহিতে ॥ হেনমতে কুম্ভীদেবী করয়ে রেদিন । প্রবোধিয়া প্ৰণমিয়া যায় পঞ্চজন ॥ প্রবোধ ন মানে কুন্তী যায় গোড়াইয়া । বিকুর কহেন তারে বহু বুঝাইয়া ॥ ধরিয়া লইয়া গেল আপনার ঘরে । কুন্তী সহ কান্দে যত নারী অন্তঃপুরে ॥ শুনিয়া হইল ব্যগ্র অন্ধ নৃপমণি । শীঘ্ৰগতি বিদুরেরে ডাকাইয়া জানি ॥