পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৫৩৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(tRN9 কহিবে সে সব কথা করিয়া বিস্তার। - মুনি বলিলেন শুন নৃপতি-কুমার a পাণ্ডবের সভায় বসিলা নারায়ণ । দেখি আনন্দ্রিত বড় পাণ্ডুর নন্দন ॥ গোবিন্দ দেখিয় রাজা মহাহৃষ্টমনে । নিভৃতে করিলা যুক্তি শ্ৰীকৃষ্ণের সনে ॥ যুধিষ্ঠির বলিলেন শুন নারায়ণ । হইবে ভারত-যুদ্ধ না হয় খণ্ডন ॥ দুৰ্য্যোধন দুৰ্ম্মতি সে করিবে প্রলয় । যুদ্ধ হেতু হইবেক জ্ঞাতিগণ ক্ষয় ॥ ক্ষত্রগণ অস্ত যাবে পৃথ্বী হতস্বামী । এ কারণে মনে মুক্তি করিয়াছি আমি ॥ জ্ঞাতিগণ বধ মম প্রাণে নাহি সহে । কুলক্ষয় নয়নে দেখিতে যোগ্য নহে ॥ দূতমুখে দুৰ্য্যোধনে কহি পুনঃ পুনঃ । । কদাচিত ছাড়িয়া ন দিবে রাজ্যধন ॥ করিলাম পূর্বে যে নিয়ম পঞ্চজনে । হইলাম ধৰ্ম্ম হৈতে মুক্ত এইক্ষণে ॥ ভ্ৰমিলাম তপস্বীবেশেতে বনে বনে । ইহাতে ও দয়া ন জন্মিল দুর্য্যোধনে ॥ অজ্ঞাত বৎসর এক রহি পরদেশে । রাজপুত্র হয়ে এত ক্লেশ ক্লাববেশে ॥ এত দুঃখ দিয়৷ ক্ষান্ত না করিল মন । সমুচিত রাজ্য নাহি দিবে দুৰ্য্যোধন ॥ বহুকষ্টে পারি যদি করিতে সংহার । রাজ্যধন তবে সে পাইব পুনৰ্ব্বার ॥ হেন রাজ্যধনে মম নাহি প্রয়োজন । কিবা কাৰ্য্য করিব মারিয়া জ্ঞাতিগণ ॥ এই হেতু চিত্তে ভাবি সব ক্ষমা দিব । তব আজ্ঞা হইলে পুনশ্চ বনে যাব ৷ তীর্থযাত্রা করিয়া ভ্ৰমিব বনে বন । লউক সকল রাজ্য পাপী দুর্য্যোধন ॥ পিতৃতুল্য পিতামহ আচাৰ্য্য মাতুল । আত্মীয় বান্ধব আর যত জ্ঞাতিকুল । এ সকল সংহারিব রাজ্যের নিমিত্তে । হেন রাজ্যপদে মুখ নাহি চাহি চিত্তে । করালবদনং ভীমং শুষ্কদেহং কৃপৌদরং । , 1 মহাভারত না বুঝিয়া প্রবৃত্ত হইব অহঙ্কারেণ T কি জানি যদি না পারি কুরু জিনিবারে ংসার যুড়িয়া লজ্জ হবে অতিশয় । এই হেতু মম চিত্তে হইতেছে ভয় ॥ হের ভীম ধনঞ্জয় মান্দ্রীর নন্দন । আজন্ম দুঃখেতে গেল কে করিবে রণ ॥ বলহীন শরীর কেবল আত্মা মাত্র । কৌরব সম্মুখে নাহি হয় যুদ্ধপাত্র ॥ বিরাট দ্রুপদ ধৃষ্টদ্যুম্ব শিখণ্ডাদি । দ্রৌপদীর পঞ্চপুত্র আর সত্যবাদী ॥ এই সব বীর আছে আমার সহায় । ইহার কি করিবেক কৌরব দুর্জয় ॥ কৌরবের সহায় অনেক বীরগণ । এক এক জন যেন দ্বিতীয় শমন ॥ ভীষ্ম দ্রোণ অশ্বথাম কৃপ মহামতি । সোমদত্ত ভুরিশ্রব স্বশৰ্ম্ম নৃপতি ॥ মহারথী মহামতি সবে মহাবল । শত ভাই দুৰ্য্যোধন আর বৃহদ্বল ॥ যুদ্ধে কাজ নাহি মম না পারিব জানি । বনবাসে কর আজ্ঞা যাব চক্রপাণি ॥ এত শুনি হাসিয়া কহেন নারায়ণ । সন্ন্যাস ধৰ্ম্মেতে তব নাহি প্রয়োজন ॥ রাজধৰ্ম্ম নীতি কিছু কহিব তোমারে। পূৰ্ব্বেতে নিম্পন্ন যাহা হইল বিচারে ॥ রাজা হ’য়ে ক্ষমাবস্ত নহিবে কথন । অতি উগ্র না হইবে সদা শান্তমন ॥ ক্ষত্ৰধৰ্ম্মে যেই জন হয় বলবান । অহঙ্কারে জ্ঞাতি বন্ধু করে তৃণজ্ঞান ॥ ক্ষত্র মধ্যে শত্রুশক্ষ গণি যে তাহারে । করিবে তাহাকে নষ্ট যে কোন প্রকারে বলে ছলে যুদ্ধে তারে যেরূপে পাইবে । অবশ্য তাহারে রাজা সংহার করিবে ! ইহাতে অধৰ্ম্ম নাহি শুন নরবর । সেই সব দুৰ্য্যোধন করিল পামর ॥ তাহারে মারিতে নহে পাপের উদয় । জ্ঞাতিমধ্যে শত্ৰু সেই মহা দুরাশয় ।