পাতা:কাশীদাসী মহাভারত.djvu/৯০৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


স্বৰ্গারোহণপৰ্ব্ব । ] ভিন্দন্তিকশিপোবক্ষে নারসিংহীতিবিজ্ঞতা ॥ Ե-Ե> কালচক্র ফিরে সদ আপনার কাছে । বৃক্ষ লতা নাহি তথা ভাস্করের তেজে ॥ পাপিষ্ঠ পরাণী যদি তথা গতি করে। আরোহণ মাত্রে সেইক্ষণে পুড়ে মরে ॥ দেখিয়া বিস্ময়াপন্ন ভাই পঞ্চজন । কালাগ্নি রুদ্রের পুরী ভয়ঙ্কর বন ॥ অতিশয় প্রচণ্ড প্রতাপ তেজ তার । নিকটে যাইতে শক্তি নাহিক কাহার ॥ আছেন ঈশ্বর তথা দশমূৰ্ত্তি ধরি । দ্বারে থাকি পঞ্চ ভাই নমস্কার করি ॥ স্তব করি বর পেয়ে করিল গমন । ক্ৰৌঞ্চ নামে পৰ্ব্বতে করিল আরোহণ ॥ ক্রৌঞ্চের নিৰ্ম্মাণ পুরী অতিশয় শোভা । ইন্দ্রের খাণ্ডব জিনি কুনকের প্রভা ॥ স্বৰ্গ হৈতে নামে তাতে গঙ্গা সরস্বতী । ংস চক্রবাক জলে চরে হৃষ্টমতি ॥ সুবর্ণের পাখা পক্ষী আছে বহুতর । জল স্থল আবাস উদ্যান মনোহর ॥ নিৰ্ম্মল উজ্জ্বল জল স্ফটিক আকার । তীরে তপ করে মুনি জ্ঞান অনুসার ॥ দেখিয়া হরিষ বড় পাণ্ডু-পুত্ৰগণ । স্বর্ণের মণ্ডপ তথা দেখি বিচক্ষণ ॥ অতি অপরূপ পুরী প্রাসাদ মন্দির। অন্ধকারে আলো করে জিনিয়া মিহির । পুষ্কর্যক্ষ নামে শিব মণ্ডপ ভিতর । র্তার পূজা করে দেব দানব-ঈশ্বর ॥ কিন্নরের রাজপুরী অতি অনুপম । স্থাপিয়াছে দেব-দেব মহাদেব নাম ॥ বীণা বংশী বাজে কেহ গায় শিবগীত । গন্ধৰ্ব্ব কিন্নর যক্ষ সবে আনন্দিত । চারিপাশে স্তুতি করে নাচয়ে নর্তনী । অন্য জাতি নারী নাহি সকল ব্রাহ্মণী ॥ কেহ গন্ধ চুয়া দেয় পুষ্প পারিজাত । বিল্বপত্রে গালবাদ্যে পূজে বিশ্বনাথ ॥ স্তবপাঠ করে কেহ শিবের সাক্ষাতে। একপদে স্তব কেহ করে বাড়হাতে ॥ \ সেবিলে সকল পাপ হয় তার ক্ষয় । অনেক তপস্বী ঋষি করয়ে আশ্রয় ॥ নিরবধি সবে সেবে শিবের চরণ । অন্তরীক্ষে আছে কেহ যোগপরায়ণ ॥ দেখি পঞ্চভাই করিলেন স্নানদান । লোভ মোহ ছাড়িয়া পাইল দিব্যজ্ঞান ॥ স্নান করি পাণ্ডব হইল কুতুহলী । পিতৃলোকে উদ্দেশিয়া দেন জলাঞ্জলি ॥ প্রবেশ করেন সবে মণ্ডপ ভিতরে । বিবিমতে পঞ্চভাই পূজিল শঙ্করে ॥ করযোড়ে প্রভু রুদ্রে মাগিলেন বর । পুনঃ জন্ম নাহি হয় মর্ত্যের ভিতর ॥ এত বলি প্ৰণমিয় যান তথা হৈতে । দেবপুষ্প পড়ে আসি ভূপতির মাথে ॥ দেখিয়া তপস্বিগণ প্রফুল্ল অন্তরে । আদর করিল বড় রাজা যুধিষ্ঠিরে ॥ এই তীর্থে থাক রাজা মোসবার সঙ্গে । কোথাকারে কোন হেতু যাবে কোন ভাগে ॥ ; এত শুনি যুধিষ্ঠির বলেন হাসিয়া । - নিষ্কণ্টক নিজ রাজ্য, সকলি ত্যজিয়া ॥ সঙ্কল্প করেছি আমি মর্ত্যের ভিতর। স্বৰ্গপুরে যাইব দেখিব দামোদর ॥ আশীৰ্ব্বাদ কর মোরে সব মুনিগণ । স্বর্গে গিয়া দেখি যেন দেব নারায়ণ ॥ এত শুনি বলে তারে ক্রৌঞ্চ মুনিবর । তব তুল্য রাজা নাহি অবনী ভিতর ॥ সমস্ত ত্যজিয়া যাহ স্বগের বসতি । দেখিয়া গোবিন্দ-পদ পাবে দিব্যগতি ॥ র্তারে নমস্কার করি ধৰ্ম্মের নন্দন । উত্তরসু-শল্পে সংক্র করেন তখন ॥ বদরিকা এমে দেখি জাহ্নীর কূলে । বদরিক বৃক্ষ তথা শোভে ফল ফুলে ॥ অমৃত জিনিয়া স্বাদু পিক নাদে ডালে । জর মৃত্যু ভয় নাহি তথায় থাকিলে ॥ দুৰ্ব্বাসার বরে বৃক্ষে অক্ষয় অব্যয় । নানা বর্ণে নানা স্থল দিব্য দেবালয় ॥