পাতা:কৌত্তক বিলাস.djvu/৯০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কৌত্তক বিলাস। br> জ্বালা যে পড়ে সঙ্কটে। প্রহর প্রহরী হয়ে সেই ঘাটে খাকি। শেষে সেই ধনী এসে দূর হৈতে দেখি। যেমন চাতকগণ দেখি মেঘ রাজ । झकेभन হয় তায় সিদ্ধহেত্ত কায । কতমত কথা কহি করিয়া চত্তরী। কোনমতে বগ নাহি মানে সেই নারী ॥ ভয় মৈত্র শটতায় করিয়ে প্রকাশ। তারপরে কপটে কামিনী দিল আশ ॥ কহি ল নিতান্ত যদিনা ছাড়িবে মোরে । তবে আজি নিশি শেষে যাবে মম ঘরে। বহি কিছু সঙ্কেত করহ অবস্থান করতালি দিও গিয়ে যথা মমস্থান ! আমার হইল মন তব ভাব যেনে । দিবসেতে এই খানে ছেড়ে দেহবেনে লোকেতে দেখিবে শেষে হইবে প্রকাশ । ईरडाङ्के স্ততোনই ন পুরবে আশ ৷ ইহা বলি হাস্য করে নয়ন অপাঙ্গে। হরিল আমার মন কুমতি কুসঙ্গে ৷ বিশ্বাস করিয়া অশি ছাড়িলাম আমি কহিল অবশ্য অদ্য রাত্রে যাবে ত্তমি । এখানে আমার আর বিলম্ব নাসয়। তুষ্টিতঅগ্ৰেতে কোথা বল বারি ধায় ৷ হইল সন্ধ্যার কাল অঙ্গ আদর্শন । তাহার কানাছে আমি রহিযে গোপন । মশা ডাশে দংশে তাহা মারিতে না পারি। পাছে সব্দ হয় ভাবি গুহি ৰূপে সারি। কাচি কাশী পাইলে যে বিষম যন্ত্রণা ৷ বদনে বসন দিয়ে করি হে সান্তন । হেন কালে সেই নারী কহে পতি পাশে । আধ মিষ্ট মৃদুখরে মন্দং ভাষে। শুনং ঠাকুর আমার