পাতা:গল্পস্বল্প.djvu/৮৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


এবং প্রতিজ্ঞা করিল জীবন থাকিতে এ বাক্স সে কখনই কাছ ছাড়া করিবে না। 筆 蘇 蘇 蘇 এই ঘটনার পর আজ অনেক বৎসর চলিয়া গিয়াছে। যে বালকের আগে একটী ফ্লোরিন মাত্র আয় ছিল আজ তিনি রাজরাজেশ্বর-আজ তিনি ফ্রান্সের সম্রাট,দুৰ্গম আর পর্য্যন্তও এখন তাহার গতিরোধে সমর্থ নহে, সমস্ত ইয়ুরোপ আজ তাহার নামে কম্পিত। কিন্তু এখনও তাহার জয়ের অাশা মিটে নাই। ঐ দেখ জয়াশায় এখনও তিনি যুদ্ধে ব্যস্ত। অশ্বের হেমা রবে, কামানের গভীর গর্জনে, ধূমে, রণবাদ্যে,আহতদিগের চীৎকারেরণস্থল এক ভীষণ মূৰ্ত্তি ধারণ করিয়াছে, কিন্তু জয়লক্ষ্মীকে আলিঙ্গন করিতে ' নেপোলিয়ন কোথায় না অগ্রসর হইতে পারেন । কিন্তু হায়! এইবার বুঝি জয়লক্ষ্মীর পরিবর্তে র্তাহাকে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করিতে হয় । ঐ দেখ একজন শক্রসেন নেপোলিয়নের উপর অস্ত্র তুলিয়াছে—এমন সময়ে একজন ফরাসী সেনা নক্ষত্ৰবেগে ছুটিয়া আসিয়া নেপোলিয়নের স্থল অধিকার করিয়া তাহার প্রাণরক্ষা করিল বটে কিন্তু সে নিজে আহত হইল। এ সৈনিক আর কেহ নহে তাহারই বাল্যসথা জাকোপা। জাকোপা তাহার বন্ধুকে এত ভাল বাসিত যে র্তাহার সঙ্গে থাকিবার জন্য সেও দেশ পরিত্যাগ করিয়া এখানে আসিয়া তাহার কোন সেনাপতির অধীনে কার্য গ্রহণ করে। তখন নেপোলিয়ন রাজক্সজেশ্বর, জাকোপা সামান্ত সৈনিক মাত্র, পুরস্পরের দেখা শুনা হইবার কোন সম্ভাবনাই নাই। তথাপি বন্ধুর কাছে আছি এই ভাবি