পাতা:গল্পাঞ্জলি.djvu/১৩২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>&W。 গল্পাঞ্জলি ভর করিয়া গৃহে ফিরিয়া আসিলেন এবং প্রতিজ্ঞা করিলেন রসমীর আর মুখদর্শন করিৰেন না—অন্যত্র বিবাহ করিবেন। এ বাড়ীতে রসময়ীকে আৰ ঢুকিতে দিবেন না—এই শেষ । দ্বিতীয় পরিচ্ছেদ .হালিসঙ্গর গ্রামটি হুগলীরই অপর পারে—মধ্যে গঙ্গা প্রবাহিত। ੱਝ রসময়ীর পিত্ৰালয়। অনেক দিন হইল তাহার পিতামাতার কাল হইয়াছে। এখন সে বাড়ীতে রসমন্ধীর বিধবা দিদি বিনোদিনী এবং তাছার দুইটি ছোট ভাই নবীন ও স্বৰোধ বাস করে। নবীন কাচড়াপাড়ার কারখানায় কৰ্ম্ম করে—স্থবোধ ইস্কুল ছাড়িয়া এখন ৰাড়ীতেই বসিয়া আছে—কৰ্ম্মকায এখনও কিছু জুটে নাই । মাসাধিক কাল রসময়ী হালিসহরে বাস করিতেছে। পূৰ্ব্বে পূৰ্ব্বে এরূপ স্থলে দুইচারি দিন বা বড় জোর এক সপ্তাহ পরে, দন্তে তৃণ করিয়া ক্ষেত্রমোহন আসিয়া উপস্থিত হইতেন এবং কত সাধ্যসাধনা করিয়া স্ত্রীকে গৃহে ফিরাইয়া লইয়া যাইতেন। কিন্তু এবার সে নিয়মের ব্যতিক্রম দেখিয়া রসময়ী কিছু চিন্তিত হইয়া পড়িয়াছে। পাড়ার একজন বালক প্রত্যহ নৌকাযোগে গঙ্গাপার হইয়া হুগলি ব্রাঞ্চ ইস্কুলে পড়িতে যাইত। সে ছেলেটি গ্রামে প্রচার করিয়া দিল, ক্ষেত্রমোহন বাবুর বিবাহ-দিনস্থির হইয়া গিয়াছে। so এই কথা শুনিয়া রসময়ীর দিদি বিনোদিনী একদিন বৈকালে ছেলে \ টিকে বাড়ীতে ডাকিয়া আনিলেন। তাহাকে সন্দেশ ও রসগোল্লা খাইতে