পাতা:গল্পাঞ্জলি.djvu/১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


br গল্পাঞ্জলি মহাজনের শতকরা একটাকা মাসে স্থদ নেয়—আমি সেই সুদ তোমায় দেব। প্রতি বছরের সুদ—আসলে গিয়ে মিশবে । আমার বাড়ী তিন খানার যা দাম, দশ বছরের সুদে আসলেও ততদূর উঠবে না । তোমার টাক মারা যাবে না ভাই ।” বিপিন বাবু ভূতাকে ডাকিয়া নিমন্ত্রণে যাইবার জন্ত কোন কোন বস্থাদি বাহির করিতে হইবে তাহাই নির্দেশ করিতে লাগিলেন । তাহার ভাবগতি দেখিয়া অবশেষে নলিনী বলিল—“দেখ বিপিন, তোমার মনের কথা আমি বুঝতে পেরেছি। তুমি ভাব ছ, এতগুলো টাক এই অল্বডেড লোকটাকে ধার দেব—শোধ যা করবে তা মা গঙ্গাই জানেন । অথচ নালিশ করে বাড়ীগুলো বিক্রী করে নেওয়া, সেও বিষম চক্ষুলজ্জা । বাল্যবন্ধু—তাকে ভিটেমাট উচ্ছন্ন করলে লোকেই বা বলবে কি ! আচ্ছা ভাই—আমি একটা প্রস্তাব করছি। বাড়ী তিনখানা আমি পাচবছরের মেয়াদে তোমার কট্‌কবালা লিখে দিচ্ছি। যে দিন পাঁচ বছর শেষ হবে, সেদিন বা তার আগে, স্বদে আসলে তোমার সমস্ত টাকা আমি পরিশোধ করতে পারি, উত্তম, বাড়ী আমার থাকবে । না পারি—বাড়ী তোমার হয়ে গেল –ডিক্ৰীজারির হাঙ্গামা পোয়াতে হবে না । কি বল ?” এতক্ষণে যেন বিপিন বাবুর অন্তমনস্ক ভাবটা ঘুচিল। ভূতা আসিয়া বলিল-শয়নকক্ষে বস্থাদি প্রস্তুত । বিপিন বাবু বলিলেন—“আভি থোড়া দের হায় ।” দ্বারবান আসিরা সংবাদ দিল গাড়ী যোত হুইয়াছে। তাহাকে বলিলেন—“আভি আধাঘণ্টা দের হায় ।” নলিনীর মনে ভরস হইল । তখন অৰ্দ্ধঘণ্টা ধরিয়া দুইজনে অনেক কথাবাৰ্ত্ত হইল। বিপিনবাৰু টাকা দিতে স্বীকৃত হইলেন ।