পাতা:গল্পাঞ্জলি.djvu/৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বাল্যবন্ধু ایالات সাহেবের জবানবন্দি শেষ হইলে ম্যাজিষ্ট্রেট সাহেব নলিনীকে বলিলেন—“তোমার উকীল আছে ?”

    • কেহ না ।”

“জেরা করিবে ?” “কি জেরা করিব ?” ম্যাজিষ্ট্রেট সাহেব তখন স্বয়ং, নলিনার উক্তিমত পেন্সিল চাওয়া প্রভৃতি ঘটনা ঘটিয়াছিল কি না জিজ্ঞাসা করিলেন । সাহেব বলিল, ও Hকল কথা সৰ্ব্বৈব মিথ্যা । তারপর কলষ্টেবল ও সাজ্জেণ্ট সাহেব যেমন যেমন দেখিয়াছিল, তাত৷ স্বাক্ষ্য দিল । ম্যাজিষ্ট্রেট সাহেব তখন মলিনাকে জিজ্ঞাসা করিলেন—“তুমি কাহাকেও সাফাই সাক্ষী দিতে চাও ?” নলিনী বলিল—“প্রকৃত ঘটনা রাস্তার সবাই দেখিয়াছিল—সবাই বলিবে আমার কথা সত্য।” “তাহাদের কাহারও নাম ঠিকান বলিতে পার ?” “কি করিয়া বলিব ?” তাঙ্গার পর ম্যাছিষ্ট্রেট সাহেব পাচ মিনিট ধরিয়া রায় লিখিলেন । অবশেষে বলিলেন—“তোমার ১৫২ টাকা জরিমানা, না দিলে এক সপ্তাহ কয়েদ ।” কোট ইনস্পেক্টর নলিনীর দিকে চাহিয়া জিজ্ঞাসা করিলেন-- “টাকা দিবে ?” নলিনী যলিল—“কোথা পাইব ?” কোটের কনেষ্টবল তখন নলিনীকে জেলে লইয়া যাইবার জন্ত কাঠগড়ায় গেল । এমন সময় কে এক ব্যক্তি বলিয়া উঠিল—