পাতা:গল্প-গ্রন্থাবলী (প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়) তৃতীয় খণ্ড.djvu/২২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ఫిసిస్రి 叠 গল্প-গ্রন্থাবলী বাহিরে আসিয়া কানাই আবার খানসামার নিকট বসিয়া, সাহেব ও তাঁহার পরিবারবগ সম্প্রবন্ধে তথ্য সংগ্রহে প্রবাক হইল। " অপেক্ষণ পরে বাবচ্চিখানা হইতে শব্দ আসিল, “রসল ভাই—জেরা এদিকে আয় उ, !” রসল, হাতের গলাস নামাইয়া রাখিয়া প্রস্থান করিল। এই সষোগে কানাই চট করিয়া খানাকামরায় প্রবেশ করিয়া একটা ন্যাসপাতি ও দুইটা আপেল নিজ পকেটে পরিয়া বাহিরে আসিয়া, আবার যথাস্থানে বসিল। মিনিট পাঁচেকু পরে রসলে ফিরিয়া আসিল। কানাই তখন দাঁড়াইয়া উঠিয়া বলিল, “আচ্ছা, এখন তবে, বেলা হল। সেলাম ভাইসাহেব।” “সেলাম । কাল বিহানে এসে, আমার কাছ থেকে তোমার উদ্ভিদ চেয়ে নেবে। সাবন দেবে, হাতম আচ্ছিতরে ধয়ে, উন্দি পরে আপন কমে যাবে। সাহেবলোক ময়লা একদম দেখতে পারে না—খবে সাফাই চায় ।” - “আচ্ছা”—বলিয়া কানাই প্রস্থান করল। কিছদর গিয়াই পদ্মপকূর। ঘাটে নামিয়া, পকেট হইতে ফল তিনটি বাহির করিয়া জলে ধুইয়া লইয়া, বেটিসন্ধে খোসাসদ্ধে কামড় মারিয়া গোগ্রাসে চিবাইতে লাগিল। ফল তিনটি নিঃশেষ করিয়া পদ্মপক্সেরের জল অঞ্জলি অঞ্জলি পান করিল। হাত পা ধুইয়া উপরে আসিয়া ছায়াতলে একখানি বেঞ্চি দেখিয়া, তাহার উপর শয়ন করিল। ঝির ঝির করিয়া বাতাস বহিতেছিল; কানাই অবিলম্বে ঘামাইয়া পড়িল । नई চাকরিতে ভত্তি হইবার এক সপ্তাহ পরে, কানাই অতি প্রাতে প্রভুর গহে প্রবেশ করিবার সময় ফটকের বাহিরে একটি "মনিব্যাগ” কুড়াইয়া পাইল। সেটি লইয়া বাগানে লেবগোছের আড়ালে দাঁড়াইয়া খলিয়া দেখিল, ভিতরে দইখানি দশ টাকার নোট এবং খুচরায় তিন টাকা কয়েক আনা রহিয়াছে। তার মনের মধ্যে প্রলোভন হইল, টাকাগলি সে আত্মসাৎ করে। নোট ও টাকাগুলি বাহির করিয়া লইয়া, ব্যাগটা রাস্তায় ফেলিয়া দিলেই হইল। কিন্তু তাহার মনে একটা দিবধাও উপস্থিত হইল। ছি ছি— শেষকালে চরি! একদিন পেটের জবালায় ফল চরি করিয়া খাইয়াছিল বটে। কিন্তু টাকা চরি একান্ত গাঁহাত কম হইবে যে ! খল সম্ভব বড় সাহেব কিংবা ছোট সাহেবেরই এ ব্যাগ। বড় সাহেবের বোধ হয় নয়, ছোট সাহেবেরই হইতে পারে। কারণ গত রাত্রে বড় সাহেব ত কোথাও বাহির হন নাই; ছোট সাহেবের বাহিরে নিমন্ত্রণ ছিল, কানাই যখন বাড়ী যায়, তখনও তিনি ফেরেন নাই—তিনিই বোধ হয় বাড়িতে প্রবেশ করিবার সময় অসাবধানে এ বাগ ফেলিয়া গিয়াছেন। নাঃ, লোভ করিয়া দরকার নাই, —তামাক দিতে গিয়া এ ব্যাগ বড় সাহেবের নিকট দাখিল করিতে হইবে। কানাই লোভ রিপকে জয় করিল। বড় সাহেবের নিকট ব্যাগটি দিল। সে ঠিকই অনুমান করিয়াছিল। ছোট সাহেব গতকল্য রাত্রি ১২টার সময় তাঁহার ক্লাব হইতে ডিনার খাইয়া বাড়ী ফিরিয়া, ট্যাক্সিওয়ালাকে ভাড়া দিবার জন্য ব্যাগটি তাঁহার পাৎলনের পকেট হইতে বাহির করিয়াছিলেন। তারপর, ভাড়া দিয়া, উহা পাৎলনের পকেটে রাখতে গিয়া মাটিতে পড়িয়া যায়। সাহেবের তখন বিলক্ষণ মত্তাবস্থা—ব্যাগ পড়া খেয়াল করিতে পারেন নাই। পিতার অনুরোধে ছোট সাহেব কানাইকে তাহার এই সাধতার জন্য দুইটি টাকা বখশিস করিলেন । এই ঘটনার পর হইতে, কানাইয়ের পশার এ বাড়ীতে খুব বাড়িয়া