পাতা:গীতরত্ন গ্রন্থঃ (১৮৭০)- রামনিধি গুপ্ত.djvu/১১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।
[ ৯৩ ]

কানড়া । তাল জল তেতাল । যখন তোমারে অামি না পাই দেখিতে, বিরহ স্বালায় হয় ভ্রমণ করিতে, পাগল দেখিয়ে শুন লো প্রিয়ে কেহ তোষে কেহ মারে | ১ মিয়ার কানড়া । তাল জলদ তেতাল । ঐখানে রহিও প্রাণ প্রভাতে শশী কুমুদি ভবনে কেন । দেখ না কমল, হয়েছে প্রফুল, নিরখি লখা আপন । সময়ে সদয় নহ, অসময়ে কেন দহ, এবে দরশন, লম আদর্শন, এমনি সময় গুণ ।। ১ { দরবারি কনড় । তাল হরি । প্রাণ কেন এত রোষ কর অধিনী অবল পর { তুমি ধন মন প্রাণ,এই ভাব রাত্রি দিন, অন্তরে হয় মোর । তোম। বিনে থাকি জামি, যেন শৃঙ্কাকার, দরশনে সচেতন, নিঃসন্দেহ হই জখন, ভয় নাহি আর । ১ তল জলদ তেতাল । যে যীরে ভালবালে লে তারে ভাল বাসেন কে বলে । নীরদ তেমনি তারে ক্তোষে ধারা জলে | ১ {