পাতা:গীতা-গ্রন্থাবলী (উপেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়).djvu/৩৬৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শিব গীতা । මෘඅණූ শ্রত্বেতি দেব মদ্বাক্যং কৈবল্যজ্ঞানমুত্তমম্। জপন্তো মম নামানি মম ধ্যানপরায়ণা: ॥ ৫৪ ৷ সৰ্ব্বে তে স্বস্বদেহান্তে মৎসাযুজ্যং গতাঃ পুরা। ততো যে পরিদৃশ্যন্তে পদার্থ মদ্বিভূতয়: ॥ ৫১ ৷ ময্যের সকলং জাতং ময়ি সৰ্ব্বং প্রতিষ্ঠিতম্ ॥ ময়ি সৰ্ব্বং লয়ং যাতি তদব্ৰহ্মাম্বয়মস্ম্যহম্ ॥ ৫২ ॥ অশোরণীয়ানহমেব তদ্বন্মহানহং বিশ্বমহং বিশুদ্ধঃ। পুরাতনোহহং পুরুষোহহমীশো, হিরন্ময়োহহং শিবরূপমস্মি ॥৫৩ অপাণিপাদোহহমচিস্ত্যশক্তি, পখাম্যচক্ষু: স শৃণোম্যকৰ্ণ । অহং বিজানামি বিবিক্তরূপে, ন চাস্তি বেত্তা মম চিৎ সদ্যহম্।। ৫৪ ৷ বেদৈরশেষৈরহমেব বেছো, বেদান্তকুম্বেদবিদেব চাহম্। ন পুণ্যপাপে ময়ি নাস্তি নাশো, ন জন্ম দেহেন্দ্ৰিয়ৰুদ্ধয়শ্চ ॥ ৫৫ ৷ ( হে রামচন্দ্র । ) দেবগণ কৈবল্যজ্ঞানপ্রদ অত্যুত্তম আমার এই প্রকার বাক্য শ্রবণ করিয়া আমার নাম জপ করিতে করিতে আমার ধ্যানপরায়ণ হইয়াছিলেন এবং তাহারা সকলেক্ট স্ব স্ব দেহ ত্যাগ করিয়া আমার সাযুজ্য প্রাপ্ত হইয়াছিলেন। অতএব ত্রিভুবনে যাহা কিছু পদার্থ দৃষ্ট হইয়া থাকে, তৎসমস্তই আমার বিভূতি বলিয়া জান । অামাতেই নিখিল ব্রহ্মাও উৎপন্ন ছয় ও প্রতিষ্ঠিত থাকে, আবার আমাতেই বিলীন হইয়া যায়, আমিই সেই অদ্বয় ব্রহ্মস্বরূপ । ৫-৫২ ৷ আমি স্বাক্ষ হইতে স্বক্ষতম, আমি মহৎ হইতে মহত্তম, আমি বিশ্বস্বরূপ, অথচ বিশুদ্ধ অর্থাৎ নিলিপ্ত, আমি পুরাতন পুরুষ, আমি পরমেশ্বর, আমি হিরণ্যগর্ত এবং আমিই শিবস্বরূপ ॥ ৫৩ ৷ অামি হস্তপদবিহীন, আমার শক্তি অচিন্তনায়, আমি চক্ষুরিশ্রিয়ৰিহীন হইয়াও বিষয় সাক্ষাৎকার করিয়া থাকি, শ্রবণেন্দ্রিয়বিহীন হইয়াও শব্দের উপলব্ধি করি, আমার স্বরূপেব কখনই আবরণ জয় না, আমি সৰ্ব্বদাই সমস্ত প্রকাশ করিয়া থাকি, আমার স্বরূপ কেহই জানিতে পারে না, আমি পৰ্ব্বদাই চিৎস্বরূপে বিরাজমান থাকি ॥ ৫৪ ৷ অশেষ বেদের দ্বারা একমাত্র আমাকেই জানিতে হয়,আমিই বেদান্তকৰ্ত্ত, আমিই বেদবিৎ, আমার পুণ্য-পাপ কিছুই নাই, আমার বিনাশ নাই, উৎপত্তি নাই এবং দেহ, ইন্দ্রিয়, বুদ্ধি কিছুই নাই ॥ ৫৫ ৷