পাতা:গোবিন্দ দাসের করচা.djvu/১৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


একজন ব্রহ্মবাদী নিকটে আসিয়া । তুলিলা অদ্বৈতবাদ চৈতন্ত হাসিয়া । বেদ বেদাস্তের কথা শাসের প্রমাণ । বলিয়া বুঝান তারে শুনিয়া অজ্ঞান ॥ প্রভু বলে শুন শুন জ্ঞানী মহাশয়। সৰ্ব্ব সাধনের সিদ্ধি রাধাপ্রেম হয় । রাধিকার স্বল্প প্রেম পৰ্ব্বত সমান। ভক্তি বিনা কেহ তার না পায় সন্ধান ॥ আত্মমুখ তেয়াগিয়া রাধিকাসুন্দরী। কৃষ্ণ সুখে পাগলিনী সব পরিহরি। ঐরাধার গাঢ় প্রেম বুঝে যেই জন । পুনঃ পুনঃ সে জনার না হয় মরণ ॥ যেই জন মায়াবাদে ভাসে অনুক্ষণ ! তার কাছে ভক্তিতত্ত্ব না পায় স্ফুরণ ॥ প্রেমের বাছনি সার মহা ভাব হয় । সেই মহাভাবময়ী ত্রীরাধা নিশ্চয় ॥ এই তত্ত্ব ৰেই বুঝে বৃদ্ধ মহাশয় । জন্ম মৃত্যু পুনঃ পুনঃ তার নাহি হয় ৷ প্রভুর মহিমা পরে দেশে প্রচারিল। নানা লোক আসি ক্রমে জুটিতে লাগিল । এ দেশের রাজা কত অগ্ৰিহ করিয়া । প্রভুকে লইতে দিলা লোক পাঠাইয়া । প্রভু বলে সেথ মোর নাহি প্রয়োজন। বিষয়ীর কাছে আমি না করি গমন । রাজদূত বলে গুন সন্ন্যাদি ঠাকুর । কেন নাহি যাবে পাবে সম্পত্তি প্রচুর। বস্ত্র অলঙ্কার আদি যাহা তুমি চাবে। তথা তুমি অনায়াসে সেই ধন পাবে। দূতমুখে অভিপ্রায় ভাবেতে বুঝিয়।। কহিতে লাগিল। তবে তারে বুঝাইয়া ॥ ঈষৎ হাসিয়া প্ৰভু বলিলা বচন । গুন রাজদূত ধনে নাহি প্রয়োজন ॥ গোবিন্দ দাসের করচা বিষয়ের কীট যারা তাদের সংস্রবে। কন্তু নাহি যাই মুহি কি হবে বিভবে। বিষয়ের কীট করে ধনে অভিলাষ । , অনর্থের মূল ধন এই ত বিশ্বাস ॥ ধনমদে মত্ত যারা ভুলি তত্ত্ব কথা। বিষয় নরকে তারা থাকয়ে সৰ্ব্বথা ॥ অনিত্য শরীর ধনী ইহা নাহি জানে। জীবনের সার্থক বলিয়া ধনে মানে ॥ এই কথা শুনি তবে দূত করি ক্রোধ। রাজদ্বারে চলি গেলা দিতে প্রতিশোধ। দূতমুখে বার্তা শুনি রাজা রুদ্রপতি । কিছু নাহি ক্রোধ করে সন্ন্যাসীর প্রতি ॥ গোটা গোট ৬ বাত শুনি দূতের বদনে। সন্ন্যাসী দেখিতে ইচ্ছা করিলা আপনে ॥ সন্ন্যাসী হেরিতে চলে রাজা রুদ্রপতি । ভক্তিভরে বহিরিয়া আসে শীঘ্ৰগতি । হস্তী অশ্ব তেয়াগিয়া অতি দূর দেশে। সন্ন্যাসীর কাছে আসে অতি দীন বেশে ॥ দুই চারি মন্ত্রী সহ রাজা মহাশয় । প্রভুর নিয়ড়ে আসি ভক্তিভরে কয়। জোড় হস্তে রুদ্রপতি কহে বার বার। দয়া করি অপরাধ ক্ষমহ আমার ॥ না বুঝিয়া ডাকিয়াছিলাম আপনারে। সেই অপরাধ মোর ক্ষম এই বারে ॥ জ্ঞান শিক্ষা দেহ মোরে অধমতারণ। শোক দুঃখ পায় জীব কিসের কারণ ॥ বড়ই পণ্ডিত রাজা নানা শাস্ত্রে হয়। ভাগবতে বড় জ্ঞানী সৰ্ব্ব লোকে কয় ॥

  • গোটা গোট বাত = সহজ ও সরলার্থ পুর্ণ बिउँौंक प्लेडि ।