পাতা:গোরা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।


 সুচরিতা কহিল, “যা হােক, এতদিনে তাে একটা জহরি জুটেছে। দাম যা দিতে চাচ্ছে তাতে আর দুঃখ করবার নেই, এখন আর আমাদের মতাে আনাড়ির কাছ থেকে আদর যাচবার দরকারই হবে না।”

 ললিতা কহিল, “হবে না বৈকি। খুব হবে।”

 বলিয়া খুব জোরে সুচরিতার গাল টিপিয়া দিল, সে “উঃ” করিয়া উঠিল।

 “তােমার আদর আমার বরাবর চাই, সেটা ফাঁকি দিয়ে আর-কাউকে দিতে গেলে চলবে না।”

 সুচরিতা ললিতার কপােলের উপর কপােল রাখিয়া কহিল, “কাউকে দেব না, কাউকে দেব না।”

 ললিতা কহিল, “কাউকে না? একেবারে কাউকেই না?”

 সুচরিতা শুধু মাথা নাড়িল। ললিতা তখন একটু সরিয়া বসিয়া কহিল, “দেখাে ভাই সুচিদিদি, তুমি তো ভাই জান, তুমি আর-কাউকে আদর করলে আমি কোনােদিন সইতে পারতুম না। এতদিন আমি তােমাকে বলি নি, আজ বলছি, যখন গৌরমােহনবাবু আমাদের বাড়ি আসতেন— না দিদি, অমন করলে চলবে না, আমার যা বলবার আছে আমি তা আজ বলবই-তােমার কাছে আমি কোনােদিন কিছুই লুকোই নি, কিন্তু কেন জানি নে ওই একটা কথা আমি কিছুতেই বলতে পারি নি, বরাবর সে জন্যে আমি কষ্ট পেয়েছি। সেই কথাটি না বলে আমি তােমার কাছ থেকে বিদায় হয়ে যেতে পারব না। যখন গৌরমােহনবাবু আমাদের বাড়ি আসতেন আমার ভারী রাগ হত—কেন রাগতুম? তুমি মনে করেছিলে কিছু বুঝতে পারি নি? আমি দেখেছিলুম, তুমি আমার কাছে তাঁর নামও করতে না, তাতে আমার আরও মনে রাগ হত। তুমি যে আমার চেয়ে তাঁকে ভালােবাসবে এ আমার অসহ্য বােধ হত- না ভাই দিদি, আমাকে বলতে দিতে হবে-সে জন্যে যে আমি কত কষ্ট পেয়েছি সে আর তােমাকে কী বলব। আজও তুমি আমার কাছে সে কথা কিছু বলবে না সে আমি জানি, তা নাই বললে, আমার আর রাগ নেই— আমি যে কত খুশি হব ভাই, যদি তােমার—”

৫১৫