পাতা:চিঠিপত্র (ত্রয়োদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৩৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*আমি আগামীকাল গোয়ালিয়র রওনা হইতেছি, কোন স্বযোগ পাইলেই বিশ্বভারতী সম্পর্কে কিছু কাজ করিয়া আসিবার চেষ্টা করিব । বিশ্বভারতীর কোন উপকার করিবার সুযোগ পাহলে আমি তাহী সৌভাগ্য বলিয়া মনে করি ; কারণ সকলের সমবেত শুভবুদ্ধির উপর এই প্রতিষ্ঠানের দাবী ভুলিবার নয় । Dr. Jenkins-এর সঙ্গে আমার এখনও সাক্ষাৎ হয় নাই ; তবে অণগামী ৫ই সেপ্টেম্বর কলিকাত৷ ফিরিয়া তাহার সহিত আপনাদের সম্পর্কে আলাপ করার ইচ্ছা আছে । তখনই বিশ্বভারতীর বিষয়টি শেষ করিয়া ফেলিতে চাই ; এবারকার ৰাজেটে বিশ্বভারতী, ঐনিকেতন, Health Centre প্রভৃতি সব ৰিভাগের জন্ত যাহাতে grant রাখিতে পারি তাহার চেষ্টা করিব । " ইতিপূর্বে ১৯৩৭ সালে বাংলাদেশের বাজেটে নলিনীরঞ্জন বিশ্বভারতীর জন্ত Capital Grant-এর সংস্থান রেখেছিলেন, ৩০ সেপ্টেম্বর ১৯৩৭ খৃস্টাব্দে তাকে লেখা রবীন্দ্রনাথের চিঠি থেকে এই তথ্য জানা যায়। শুধু এই সময়েই নয়, পরবর্তীকালেও নলিনীরঞ্জন নানাভাবে বিশ্বভারতীর সহায়তা করেছেন । সুতরাং, বিশ্বভারতীর প্রয়োজনেই, ভগ্নস্বাস্থ্য সত্ত্বেও রবীন্দ্রনাথ নলিনীরঞ্জনের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন । এই প্রসঙ্গে উল্লেখ করা যেতে পারে, নলিনীরঞ্জনের দুর্দিনে বিশ্বভারতী তাকে আস্থঠানিকভাবে আহবান করে যে সম্মান প্রদর্শন করেন, তাতে তিনি সামাজিকভাবে বিশেষ উপক্কত হন । s. serpila stan Hrita Director of Public Instruction. \○ > 8