পাতা:চিঠিপত্র (দ্বাদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫৪৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিরুদ্ধে জাপানের যুদ্ধাভিযানকে রবীন্দ্রনাথ সমর্থন করবেন এই চিঠিতে নোগুচি এ রকম আশা ব্যক্ত করেন । নোগুচির এই পত্রের কথাই ১৪৭ সংখ্যক পত্রে উল্লিখিত । প্রসঙ্গত উল্লেখযোগ্য জাপানের সাম্রাজ্যলিপাকে তীব্র নিন্দ। করে রবীন্দ্রনাথ ১ সেপ্টেম্বর ( ১৯৩৮) এই পত্রের উত্তর দেন । ২ অক্টোবর নোগুচি এর এক স্পর্ধিত উত্তর দেন এবং রবীন্দ্রনাথ পুনরায় তার যথাযোগ্য উত্তর দেন । নোগুচির সঙ্গে রবীন্দ্রনাথের এই পত্রবিনিময় VisvaBharati Quarterly offs of: Vol IV, Part 3 cos fos grafēm i oszą The Sino-Indian Cultural Society ceste દ્ધBિ Pamphlet-5 #Co! প্রকাশিত হয় । পত্র ১৪৯, ১৫ •, ১৫ ১ । রামানন্দলিখিত ৩১ সংখ্যক পত্রের পরি প্রেক্ষিতে এই তিনটি পত্র পঠনীয় । রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে শরৎচন্দ্রের সাক্ষাৎ পরিচয় ঘটেছিল সম্ভবত ১৯১৭ সালে জোড়াসাকোর ঠাকুর বাড়িতে ‘বিচিত্রা’র আসরে । শরৎচন্দ্রের সঙ্গে প্রত্যক্ষ পরিচয়ের বেশ কয়েক বছর পূর্বেই শরৎসাহিত্যের সঙ্গে রবীন্দ্রনাথের পরিচয় ঘটেছিল। ১৩১৪ সালে ‘ভারতী’ পত্রিকার বৈশাখ ও জ্যৈষ্ঠ সংখ্যায় যখন লেখক-নামবিহীন ‘বড়দিদি'র ধারাবাহিক প্রকাশ হতে থাকে তখন রচনাশক্তির নৈপুণ্যের জন্য অনেকেই এটিকে রবীন্দ্রনাথের লেখা বলে মনে করেছিলেন । শোনা যায়, এই প্রসঙ্গ রবীন্দ্রনাথের কাছে উত্থাপিত হলে রবীন্দ্রনাথ ‘বড়দিদি" পাঠ করেন এবং লেখকের অপূর্ব রচনাকুশলতায় মুগ্ধ হন। ভারতীর ‘জাষাঢ়’ সংখ্যায় É À 8° *