পাতা:জয়তু নেতাজী.djvu/২৭৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


々こbr জয়তু নেতাজী সুভাষচন্দ্রও কয়েকবার উল্লেখ করিয়াছেন । ঐ আলোক বা অন্ধকারদর্শন, এবং "Voice of God’ বা ভগবানের প্রত্যাদেশ–উহাই জনগণের সকল বুদ্ধি ও বিচারশক্তিকে অনাবশ্যক করিয়া তুলিৱাছিল, সারাভারত রাজনৈতিক চেতনা-বজিত হইয়া অহিংসা ও চরকার মন্ত্রে দীক্ষিত হইয়াছিল । উছাতে ব্রিটিশেরই জয়লাভ হইল ; কারণ জনগণের পরিবর্তে তাহার কয়েকজন ব্যক্তিকে মাত্র হাতে পাইল— গান্ধীর সেই অমুচর কয়েকটিকে ইতিমধ্যে তাহার উত্তমরূপে বাজাইয়া লইয়াছে—উহাদের প্রার্থন পূর্ণ করা আদৌ অসম্ভব হইবে না ; উহার ব্রিটিশের অভিভাবকতায় ডোমিনিয়ন-ধরণের রাষ্ট্রক অধিকার চায় । সেই অধিকার জনগণের নামেই বটে ; কিন্তু কাৰ্য্যতঃ তাহার এবং তাছাদের অনুগ্রহভাজন কয়েকজন মিলিয়া ব্রিটিশের তাবেদারী করিয়া কিঞ্চিং প্রভূত্ব, প্রতিপত্তি ও সুখভোগের শুিখারী । মুখে যত বড় বড কথাই বলুক, তাহাদের অস্তরের সেই কামনা ব্রিটিশ রাজনীতি-ধুরষ্করগণের চক্ষে জলের মত স্বচ্ছ হইয়া উঠিয়াছিল । এইরূপ যথন অবস্থা, তখন সহসা দ্বিতীয় মহাযুদ্ধ আরম্ভ হইয় গেল, এবং তাহার ফলে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যই একটা বিবম ধাক্কায় উলটাটয় গেল। আমরা দেখিয়াছি, কংগ্রেসের সত্যাগ্রছ বা অহিংসা-যুদ্ধ তাহার বহু পূৰ্ব্বেই ধোয় হইয়া গিস্কাছে—fব্রটিশ রাজশক্তি তাছার মেরুদণ্ড ভাঙ্গিয়া দিয়াছে । কেবল গান্ধীর প্রতি সেই অন্ধভক্তির বন্ধন কংগ্রেস তখনও একটা ভিন্ন আকারে জীয়াইয়া রাখিয়াছে ; ঐ একটা দৰ্পই জনগণের নায়কতা বা প্রতিনিধিত্ব করিতেছে—সে প্রতিনিধিত্ব যেমনই হোক । রাজনীতির ঠাটটাই বজায় ছিল, ব্রিটিশের সঙ্গে কোন রকম প্লফার সুযোগ ঘটিলে ঐ কংগ্ৰেসই তখন জনগণের নামে তাহা করিতে পারিবে । ঐ যুদ্ধের সুযোগে গান্ধী-কংগ্রেস আর একবার ষে রাজ