পাতা:ঠাকুরমার ঝুলি.djvu/৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

—দুধের সাগর “ভাই, জন্মের মত বুড়ীদের পেটে রহিলাম। আর মাদিগে দেখিব না, আর বাবাকে দেখিব না।” এমন সময় কাহারা আসিয়া আস্তে আস্তে ডাকিল,- “দাদা । দাদা ?” রাজপুত্রেরা চুপি-চুপি উত্তর করিল,—“কে ভাই, কে ভাই ? আমরা যে বুড়ীর পেটে!” বাহির হইতে উত্তর হইল,-“আমার লেজ ধর” ; “আমার পুচ্ছ ধর ।” রাজপুত্রেরা লেজ ধরিয়া, পুচ্ছ ধরিয়া, বুড়ীদের নাকের ছিদ্র দিয়া বাহির হইয়া আসিল । আসিয়া দেখে, বুদ্ধ, আর ভূতুম! বুদ্ধ, বলিল,-“চুপ, চুপ! শীগগীির তরোয়াল দিয়া বুড়ীদের গলা কাটিয়া ফেলি।” রাজপুত্রেরা তাহাই করিলেন । রাজপুত্র, মাল্লা-মাঝি সকলে বাহির হইয়া আসিল । আসিয়া, সকলে তাড়াতাড়ি গিয়া ময়ুরপঙ্খীতে পাল তুলিয়া দিল । বুদ্ধ, আর ভূতুমুকে কেহ জিজ্ঞাসাও করিল না। ( SY ) ময়ুরপঙ্খী সারারাত চুটিয়া চুটিয়া ভোরে রাঙ্গা নদীর জলে গিয়া পড়িল। রাঙ্গা নদীর চারিদিকে কুল নাই, কিনারা নাই, কেবল রাঙ্গা জল। মাঝির দিক হারাইল ; পাঁচ ময়ুরপঙ্খী ঘুরিতে-ঘুরিতে সমুদ্রে গিয়া পড়িলস্বাঙ্গপুল, *মাল্লা-মাঝি সকলে হাহাকার করিয়া উঠিল। ** ** 88