পাতা:ঠাকুরমার ঝুলি.djvu/৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

ঠাকুরমা’র বুলি রাজা খাইতে পারেন না, শুইতে পারেন না, কথা কহিতে পারেন না। রাজা মনে মনে বুঝিলেন, রাখাল-বন্ধুর কাছে প্ৰতিজ্ঞা করিয়া প্ৰতিজ্ঞা ভাঙিয়াছি, সেই পাপে এ-দশা হইল । কিন্তু মনের কথা কাহাকেও বলিতে পারেন না । সুচরাজার রাজসংসার অচল হইল,—সুচরাজা মনের দুঃখে৷ মাথা নামাইয়া বসিয়া থাকেন ; রাণী কাঞ্চনমালা দুঃখে কষ্টে কোন রকমে রাজত্ব চালাইতে লাগিলেন । (8) একদিন রাণী নদীর ঘাটে স্বান করিতে গিয়াছেন, কাহার এক পরমাসুন্দরী মেয়ে আসিয়া বলিল,-“রাণী যদি দাসী কিনেন, তো, আমি দাসী হইব ।” রাণী বলিলেন—“সুচরাজার সুচ খুলিয়া দিতে পার তো আমি দাসী কিনি।” দাসী স্বীকার করিল। তখন রাণী, হাতের কঁকণ দিয়া দাসী কিনিলেন। দাসী বলিল, “রাণী মা, তুমি বড় কাহিল হইয়াছ ; কতদিন DSHuB BDBD BBB DLLD DS DDg D SS BBBBB BBDD DDD হইয়াছে, মাখার চুল জটা দিয়াছে। তুমি গহনা খুলিয়া রাখ, বেশ করিয়া ক্ষার-খৈল দিয়া স্বান করাইয়া দেই ।” ১৮৭৬ রাণী বলিলেন,-“না মা, কি আর সুস্থান করিব,-থাক্‌ ৷” দাসী তাহা শুনিল না ; রাণীর গায়ের গহনা খুলিয়া ক্ষারš খৈল মাখাইয়া দিল। দিয়া বলিল,-“মা, এখন ডুব দাও।” ” S. 溪 R AS