পাতা:ত্রিদিববিজয় কাব্য.djvu/১১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সপ্তম সৰ্ণ । :ect দীপে দৈত্যচমু মাঝে ; যোজনবিস্তারী গিরিশৃঙ্গব্রজ যথা ধরার উপরে, মহাঘাতে । কিন্তু এ আহবে, দেবদলে অক্ষত শরীর সবে দেব-অনাকিনী । হেথা বিজয়ারে লক্ষি, মায়াস্বরূপিণী অভয় কহিলা ত্রস্তে,—“যা’লে মর্ত্যভূমে ; পিণাকী স্তস্তন-শূল দিয়াছেন ছাড়ি, মোর আরাধনে তুষ্ট ; য’লে৷ লয়ে চলি । দিও কাৰ্ত্তিকেরে মোর । হায়, বুঝি, সখি, পীড়িল কতই দৈত্য বিষম-প্রহরী শিশু-দেহে, না পারি সহিতে ; তুই যা’লে৷ ত্বর করি।” হায় রে, মায়ের প্রাণ, বিশ্ব ভূমণ্ডলে গলে কত শঙ্কা গণি, বিন্দু মাত্র যথা নাহি শঙ্কা, নাহি ভয়, নাহি অমঙ্গল । ছায়ারে শরীরী করে, দেহে করে ছায়া, আiপন কল্পনাবশে । অস্ত্র ল’য়ে আইল বিজয়, যথা দেবসেনা পতি রণে অসংখ্য অস্বরে মথিছেন ভুজবলে । সম্বোধি কাৰ্ত্তিকে কহিলেন মাতৃসম । “লও অস্ত্র, বলী ; মায়।দেবী, জননী তোমার, দিয়াছেন জয় আশে । কর্ষি শূলে অদম্য প্রতাপে, ছড়ি দিলে >8"