পাতা:দুই বোন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১১৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।
১১২
দুই বোন

শৰ্মিলা কাছে গিয়ে ওর হাত ধরে বললে, “কী হয়েছে আমাকে বুঝিয়ে বলে।” শশাঙ্ক বললে, “আবার ঋণ করেছি তোমার কাছে, সে-কথা ঢাকা দিয়ো না।” শৰ্মিলা বললে, “আচচ্ছা বেশ।” শশাঙ্ক বললে, “সেইদিনকার মতোই আজ থেকে আবার ঋণ শোধ করতে বসলুম। যা ডুবিয়েছি আবার তাকে টেনে তুলবই এই রইল কথা, শুনে রাখো। একদিন যেমন তুমি আমাকে বিশ্বাস করেছিলে তেমনি অাবার অামাকে বিশ্বাস করো।” শৰ্মিলা স্বামীর বুকের উপর মাথা রেখে বললে, “তুমিও আমাকে বিশ্বাস কোরো। কাজ বুঝিয়ে দিয়ে৷ আমাকে, তৈরি করে নিয়ো আমাকে, তোমার কাজের যোগ্য যাতে হোতে পারি সেই শিক্ষা অাজ থেকে অামাকে দাও।” বাইরে থেকে অাওয়াজ এল “চিঠি। উৰ্মির হাতের অক্ষরে দু-খানা চিঠি। একখানি শশাঙ্কের নামে—