পাতা:দেবী চৌধুরানী - বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১১০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


సీశీ মেৰী চৌধুরাণী । আঙ্গরাখ, লাল ধুতি মালকোচ মার, পায়ে লাল নাগর, হাতে ঢাল সড়কি। চারি দিকে লাল নিশান পোতা । - - ན་སྨྲ.... ...་ দেবী সিংহাসনে আসীন হইল। সেই দশ হাজার লোকে একবার “দেবী রাণী-কি জয়” বলিয়া জয়ধ্বনি করিল। তার পর দশ জন মুসজ্জিত যুব অগ্রসর হইয়া মধুর কণ্ঠে দেবীর স্তুতি গান করিল। তার পর সেই দশ সহস্র দরিদ্রের মধ্য হইতে এক এক জন করিয়া ভিক্ষার্থীদিগকে দেবীর সিংহাসনসমীপে রঙ্গরাজ আনিতে লাগিল। তাহারা সম্মুখে আসিয়া ভক্তিভাবে সাষ্টাঙ্গে প্রণাম করিল। যে বয়োজ্যেষ্ঠ ও ব্রাহ্মণ, সেও প্রণাম করিল—কেন না, অনেকের বিশ্বাস ছিল যে, দেবী ভগবতীর অংশ, লোকের উদ্ধারের জন্য অবতীর্ণ। সেই জন্য কেহ কখনও র্তার সন্ধান ইংরেজের নিকট বলিত না, অথবা তাহার গ্রেপ্তারির সহায়তা করিত না। দেবী সকলকে মধুর ভাষায় সম্বোধন করিয়া, তাহদের নিজ নিজ অবস্থার পরিচয় লইলেন। পরিচয় লইয়া, যাহার যেমন অবস্থা, তাহাকে সেইরূপ দান করিতে লাগিলেন । নিকটে টাকাপোর। ঘড়া সব সাজান ছিল। 跨 - এইরূপ প্রাতঃকাল হইতে সন্ধ্যা পর্য্যন্ত দেবী দরিদ্রগণকে দান করিলেন। সন্ধ্য। অতীত হইয়া এক প্রহর রাত্রি হইল । তখন দান শেষ হইল । তখন পৰ্য্যন্ত দেবী জলগ্ৰহণ করেন নাই। দেবীর ডাকাইতি এইরূপ—অন্ত ডাকাইতি নাই । ‘ কিছুদিন মধ্যে রঙ্গপুরে গুড্‌ল্যাড় সাহেবের কাছে সংবাদ পৌছিল যে, বৈকুণ্ঠপুরের জঙ্গলমধ্যে দেবী চৌধুরাণীর ডাকাইতের দল জমায়ৎবস্ত হইয়াছে—ডাকাইভের সংখ্যা নাই। ইহাও রটেল যে, অনেক ডাকাইত রাশি রাশি অর্থ লইয়া ঘরে ফিরিয়া আসিতেছে—অতএব তাহারা অনেক ডাকাইতি করিয়াছে সন্দেহ নাই। যাহারা দেবীর নিকট দীন পাইয়া ঘরে অর্থ " লইয়া আসিয়াছিল, তাহারা সব মুনকির-বলে, টাকা কোথা ? ইহার কারণ, ভয় আছে, টাকার কথা শুনিলেই ইজারাদারের পাইক সব কাড়িয়া লইয়া বাইবে। অথচ তাহারা খরচ পত্র করিতে লাগিল—মুক্তরাং সকল লোকেরই বিশ্বাস হইল ষে, দেবী চৌধুরাণী এবার ভারী রকম লুঠিতেছে। ६ोले श्रज्ञिट्झर्ष যথাকালে পিতৃসমীপে উপস্থিত হইয়া ব্ৰজেশ্বর তার পদবন্দনা করিলেন । - হরবল্লভ অন্যান্য কথার পর জিজ্ঞাসা করিলেন, “আসল সংবাদ কি ? টাকার কি হইয়াছে ?” ്