পাতা:নীতিকণা - নারায়ণচন্দ্র বিদ্যারত্ন.pdf/৪৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৪১
নীতিকণা।

কত যে অর্ণবযানে প্রচণ্ড পবন,
বিশাল সাগর-গর্ভে করে নিমগন।
মাঝে মাঝে নাবিকেরা আর্ত্তনাদ করে,
অৰ্দ্ধ-বিনির্গত-শ্বাসে ডুবি’ছে সাগরে।
তখন সে উগ্রভাব করি দরশন,
ভীত নাহি হয় কোন মানবের মন?
 দেখিতে দেখিতে পুনঃ শান্ত ভাব ধরে,
মনোহর বীচি-মালা তর তর করে।
ধীরে ধীরে সেই ক্ষণে বহে সমীরণ,
কোথায় সে উগ্রভাব করিল গমন।
সাগর ভীষণ ভাব করিয়া বর্জন,
সুন্দর প্রশান্ত মূৰ্ত্তি করিল ধারণ।
হেন ভীষণতা আর শান্তি চমৎকার,
যাঁহার আজ্ঞায় হয়, তাঁ’রে নমস্কার।