পাতা:পণ্ডিত শিবনাথ শাস্ত্রীর জীবনচরিত.pdf/৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


V98 শিবনাথ-জীবনী । ঘাটে গেলেন। ঠাকুরমা তখনই ফিরিয়া দেখেন ঠাকুরদাদা বাড়ী নাই। তিনিও অস্থির হইয়া বলিলেন-‘হঁ। রে বুড়ে কোথায় গেল রে?” তার রাগের কথা শুনে বললেন—এখনই আসে এই। সত্যই তখনই ঠাকুরদাদা বাড়ী ফিরিলেন এবং যথারীতি ঝগড়া আরম্ভ DBBDYSSiTBB BDDBD BD DDS gS OBK DDDS SDDBD S SBB একদণ্ড শাস্তিতে থাকিতেন না । বৃদ্ধ বয়স পৰ্য্যস্ত ছাড়াছাড়ি হয় নাই। অৰ্দ্ধেক রাত্ৰি দুজনে ঝগড়া করিয়া কাটাহঁতেন, ভিন্ন গৃহে শয়নের ব্যবস্থা করিলে কিছুতেই শুনিতেন না। ঠাকুরদাদা একবার কঠিন পীড়ায় প্রায় মৃত্যুমুখে পতিত হন, কন্যা কুসুম পিতার নিকট বসিয়া কঁাদিতেছেন, ঠাকুর মা কন্যাকে এক ধমক দিয়া বলিলেন-“কাদিস কেন, বুড়ে কখন মরবে না, মলেই হোল কি না, আমি বুড়ে বয়সে একাদশী করে মরি! বুড়োকে মরতে হবে না, তুই কাদিস নে।” কন্যা এই কথা শুনিয়া একেবারে চক্ষু স্থির! স্বামী যান দুঃখ নাই, ভাবনা নাই, আবার ধমক যে তিনি একাদশী করতে পারবেন না, অতএব বুড়োর মৃত্যুরূপ অকাৰ্য্য অসম্ভব। বাস্তবিক এই নারী স্বামীর মৃত্যুর তিন বৎসর পূৰ্ব্বে গত হন। ঠাকুরদাদার রাগ হলেই ঠাকুরমাকে শাসাইতেন“যত ঝগড়া করছি একাদশী করে শোধ করবে।” তিনি গর্বভরে বলিতেন-“বয়ে গেছে একাদশী করতে। ড্যাং ড্যাং করে বুড়ে তোমায় ফেলে পালাবো।” পিতৃদেবের কঠিন পীড়ার সময়েও ঠাকুরমা বলছিলেন-“এ কখন হতে পারে না-আমি বুড়ো মা বেঁচে KDLDDS DBODBB BDDBDL SBB 00Y DB SDD DB DS S DBB সে যাত্রা সেরে উঠলেন। আশ্চৰ্য্য! ইহার দুর্গ স্পৰ্দ্ধ পূর্ণ মাত্রায় বহাল রহিল। শিবনাথ আজীবন জননীর অঞ্চলের নিধি চক্ষের